,

মাহমুদ নোমান-এর একগুচ্ছ কবিতা

জার্নি বাই ট্রেন

ট্রেনে ফিরছি
ভাড়াটিয়ার ছাদে বুনো চাঁদের অট্টহাসি
শঙ্খখালের পাড়ে ফলন্ত জমির
আঁতে হলুদে ভুট্টার
নীল দাগের পায়জামা গায়ে।

সানজুদের গোসলখানায় জলপতনের
বেরহম শব্দ,
জালফাটার তুমুল ঘর্ষণে
সাবানের ফেনায় তড়পড়াচ্ছে
পিকআপ ভ্যানের দু’টো হেডলাইট।

শরতের দুপুরে বৃষ্টি

শরতের দুপুরে ঝুপঝাপ বৃষ্টি নামলে
ধুয়ে যাচ্ছে হৃদে ডোবা কালো ঘুচঘুচে পাথরটি আর
আচানক শীত শীত লাগছে,
শার্টের সিনার বোতাম বন্ধ করে
সানজুকে খুঁজে চলছি-
আত্মাধীন শরণার্থীর চুমোচুমির এ বেলায়
একটি আলোহীন সূর্যের দাপাদাপি
অবুঝ সংসারে
সানজুর নীল শাড়িটির কুচি টেনে টেনে
ঘুমিয়ে পড়লাম।

শীতের আগাম কবিতা

রোদচুমো ঠোঁটে শুকিয়ে যাওয়া শিশিরের আর্তচিৎকার
ধুলোমাখা পথে পাতা ঝরার বেদনা
হৃদের বুকে জেগে উঠা চরে
ফসলি হাসিতে মৌমাছির নাচন
বাউণ্ডুলে যুবকের খাঁজে পা ফেলে
হেঁটে চলে সানজু,
সোনামুখি সূচ বিঁধে নরোম কলিজায়।

ওহ্ শীত ওহ্ শরৎ

তোমার পিঠে প্রজাপতি ওড়ছে শুধুও
তাই আমি হাত দিয়েছি,
ছি!ছি! ব্যস্ত দুপুর রুদ্ধশ্বাসে হাতের কাছে
মোচড়ে মোচড়ে
চাওয়া কিংবা কামনাগুলো
প্রহারে প্রহারে
বুকের মাঝে হুল ফুটালো –
প্রাচীন ব্যথায়।

একটি পাথর হয়তো মাটি বিলাপ করে
‘ ছাড়ছ না কেন?’
বেশ করেছি আর পারিনি।
ছিলাম ভালো
একটি দেখা
হঠাৎ দেখা
পাতার মতো ঝরে গেলাম শীত সকালে।

ব্লাউজের ভেতর আমার হাতের চিঠিগুলি
হয়তো অলি
ওড়ে গেলো ফুলে ফুলে
প্রেমিক হলাম শীত আসাতে, শীতের প্রীতে।

ফেসবুক থেকে মতামত দিন

নববার্তা.কম এর সংবাদ পড়তে লাইক দিন নববার্তা এর ফেসবুক ফান পেজে

আরও অন্যান্য সংবাদ


Udoy Samaj

টুইটর




Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com