,

শেখর দেব-এর একগুচ্ছ কবিতা

বেঁধেছে এমন প্রাণ

হাতের উপর হাত অনন্য অম্লান
থাকে যেন আজীবন একসূত্রে গাঁথা
হৃদয়ের সব রঙ অপরূপ দান
গড়েছি প্রণয় খুঁটি মনপাটি পাতা।
দিবস রজনী যার অরূপ বাসনা
উথলি উঠিছে ধীরে নতুন পরাগে
মৌমাছি এসেছে নিয়ে নতুন কামনা
বেঁধেছে এমন প্রাণ রাগ-অনুরাগে।

রবীকন্যা সুনয়না হেসেছো অপার
ভুবন ছাড়িয়া যাও সপ্তসিন্ধু পার।
যেখানেই যাও নাকো অনন্ত সুদূর
আছি আমি কাছাকাছি রমণ নিশ্বাসে
চুমুর মহিমা হবে অনন্য মধুর
এসব অপার মায়া অন্তপুরে হাসে।

(০৮.০৫.২০১৬ইং)

মনের সাধন

সারাদিন অমলিন থাকে মনোবাসে
তবুও ভীষণ দূরে কেন মনে হয়
ঘুম ভাঙা সকালেরা মন ভাঙা হাসে
ব্যথায় মুখর দিন চুপেচাপে সয়।
বৈশাখী হাওয়া আসে এলোমেলো মন
প্রখর মনের মাঝে জেগেছে বাসনা
কাছের মানুষ যদি কেন বৃথা ক্ষণ
দূর থেকে কেন করা কঠিন সাধনা।

সব পথ ঘুরেফিরে এই পথে আসো
মন ভরে বুকে নিয়ে অতি ভালোবাস।
সময় সাধন যদি সময়ে না হয়
লালন বলেছে গানে যাবে বৃথা দিন
দেহের বাসনা বুঝি অবহেলা নয়
মনের ভেতর যেন বাজে সুখ-বীণ।
(১০.০৫.২০১৬ইং)

মন্ত্রপাঠ

এভাবে বরষা আসে সকালের রোদে
রিমঝিম অবিরত জলকণা ঝরে
মন কেন আনমনা অচেনারে বাঁধে
সৃজনে উঠেছে প্রাণ আনচান করে।
প্রভাত ফুটেছে পুবে প্রিয়ার মতন
যেভাবে হাসির রেখা ফুটে তার মুখে
অথচ আঁধার জমে ধীর শান্ত মন
বাসনা ঝিলিক মারে পয়মন্ত চোখে।

বৃষ্টির বুকের মাঝে ঝরেছে যে জল
জলের মানুষ জানে কতোটা প্রবল।
সকালের মন্ত্রপাঠ ব্যস্ততা ভীষণ
তুমি আছো ধ্যানমগ্ন অরূপ আলোয়
জপি আমি তোর নাম একনিষ্ঠ মন
দিবারাত্রি মনোধাত্রী প্রাণবন্ত রয়।

(১৯.০৫.২০১৬ইং)

রাসমেলা

বিরহ ব্যথার সুখ কতো না আমোদে
গভীর হৃদয় হতে শোক ফুটে উঠে
এ কোন অক্ষম সুর শুনি ওগো রাধে
পরাণ পাগল প্রায় মন হরি লুটে।
বিষয় ভ্রমণ শেষে পেয়েছি মালুমে
অতি প্রেমে নষ্ট সব জীবন ধূসর
ভাষারা বাধার মুখে প্রেমিক কলমে
তবুও সুরের তান পেয়েছে প্রসার।

এভাবে প্রেয়সী তুমি চুপিসারে থাকো
বোঝার ক্ষমতা নেই কী-বা মনে রাখো।
সুনিশ্চিত অবহেলা যদি লেখা থাকে
মরীচিকা পিছু কেন হাঁটি সারাবেলা
মৃত্যুহীন প্রাণ এক যদি সুখে থাকে
তোমার পূজায় যেন বসে রাসমেলা।

(২০.০৫.২০১৬ইং)

মনজুঁই ফুল

সুদিন কেমন জানি দূরে দূরে থাকে
কাছের মানুষ কেন থাকে দূরে চুপ
প্রেমিক হাওয়া বহে সুর বেঁধে রাখে
অনুরাগে জ্বলে যায় মনের স্বরূপ।
প্রাণের পাগল টান উতলা এমন
বাসনা প্রবল বাড়ে রাতের গভীরে
দিন কাটে ব্যথা নিয়ে অরূপ রতন
অবশেষে সুখ নামে বাড়ে ব্যথা ধীরে।

যতই এসেছো কাছে বেড়েছে সুরভী
দিনের সমস্ত রঙে ফুটেছে করবি।
খুনসুটি দিনগুলো দ্রুত চলে যায়
ফুলের সুবাস শুধু করেছে আকুল
দূরে দূরে থাকো যতো মনোমাঝে পাই
ভালোবাসা লুকোচুরি মনজুঁই ফুল!

(১৭.০৫.২০১৬ইং)

তারার অমোঘ ভেলা

চেয়েছি তেমন কিছু অচেনা অবোধ
যেমন ফুলের মধু টেনেছে ভ্রমর
কেমন কেটেছে বেলা নরোম সুবোধ
অনুভূত অনুরাগে কতোটা মুখর?
দিনের প্রতাপ যদি রাতের আঁধার
তারার অমোঘ ভেলা আকাশে প্রকট
ভূমিতে পেতেছি মন পাবো কি আবার
তোমার পরশ লাগি করি ছটপট।

অচেনা ব্যথারা কাঁদে বুকের ভেতর
অবহেলা অযতন করে দেবে পর।
কাছের মানুষ যদি না-ই বুঝ তুমি
কেমন প্রেমিক বায়ু করেছো হরণ
দিবস প্রভাত বেলা কাঁপে মনোভূমি
আকুলতা কেন হয় এমন মরণ!

(১৭.০৫.২০১৬ইং)

ফেসবুক থেকে মতামত দিন

আরও অন্যান্য সংবাদ


Nobobarta on Twitter




Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com