সিলেট জেলা ও মহানগর বিএনপির বিক্ষোভ সমাবেশ

সিলেট জেলা ও মহানগর বিএনপি নেতৃবৃন্দ বলেছেন- আপোষহীন দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া এদেশের গণতন্ত্রের মা। অবৈধ আওয়ামী ফ্যাাসিস্ট সরকার আদালতকে ব্যবহার করে গণতন্ত্রের মা’কে ষড়যন্ত্রমুলক মামলার ফরমায়েসী রায়ে কারাগারে আটকে রেখেছে। তিন বারের সাবেক সফল প্রধানমন্ত্রী দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি নিয়ে সরকার সুদুরপ্রসারী ষড়যন্ত্র শুরু করেছে। বিএনপি চেয়ারপার্সন দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবীতে রাজধানী ঢাকায় নিরীহ শীর্ষ নেতৃবৃন্দের শান্তিপূর্ণ কর্মসুচীতে সরকারের পেটুয়া বাহিনী পুলিশের বর্বর আচরণ এদেশের গণতান্ত্রিক শাসনব্যাবস্থার উপর কলংকজনক অধ্যায়ের সুচনা করেছে। দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি নিয়ে কোন টালাবাহান বরদাশত করা হবেনা। অবিলম্বে গণতন্ত্রের মা দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে নিঃশর্ত মুক্তি দিতে হবে।

সোমবার বিকেলে বিএনপি কেন্দ্র ঘোষিত কর্মসুচীর অংশ হিসেবে ষড়যন্ত্রমুলক মামলার ফরমায়েসী রায়ে কারান্তরীণ বিএনপি চেয়ারপার্সন দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তির দাবীতে এবং রাজধানীতে বিএনপির শীর্ষ নেতৃবৃন্দের উপর পুলিশের বর্বর হামলার প্রতিবাদে নগরীর রেজিষ্ঠারী মাঠে অনুষ্ঠিত বিশাল বিক্ষোভ সমাবেশে বক্তারা উপরোক্ত কথা বলেন। সিলেট জেলা ও মহানগর বিএনপি আয়োজিত বিক্ষোভ সমাবেশে জেলা ও মহানগর বিএনপি ছাড়াও অঙ্গ ও সহযোগি সংগঠনের বিপুল সংখ্যক নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন।

সিলেট মহানগর বিএনপির সভাপতি নাসিম হোসাইনের সভাপতিত্বে ও জেলা সাধারণ সম্পাদক আলী আহমদের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত বিক্ষোভ সমাবেশের শুরুতে পবিত্র কোরআন থেকে তেলাওয়াত করেন জেলা বিএনপির উপদেষ্ঠা আহমেদুর রহমান চৌধুরী মিলু।

সমাবেশে বক্তব্য রাখেন- বিএনপির কেন্দ্রীয় সিলেট বিভাগীয় সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক সাবেক এমপি দিলদার হোসেন সেলিম, বিএনপির কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য ও সিলেট জেলা সভাপতি আবুল কাহের চৌধুরী শামীম, মহানগর সাধারণ সম্পাদক বদরুজ্জামান সেলিম, মহানগর সহ-সভাপতি এডভোকেট হাবিবুর রহমান হাবিব, সহ-সভাপতি সালেহ আহমদ খসরু, সহ-সভাপতি কাউন্সিলার ফরহাদ চৌধুরী শামীম, সহ-সভাপতি প্যানেল মেয়র রেজাউল হাসান কয়েস লোদী, সহ-সভাপতি ডা: নাজমুল ইসলাম, জেলা সহ-সভাপতি আজির উদ্দিন চেয়ারম্যান, মহানগর সহ-সভাপতি আব্দুল ফাত্তাহ বকশী, জেলা উপদেষ্ঠা শহিদ আহমদ চেয়ারম্যান, জেলার সিনিয়র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুবুর রব চৌধুরী ফয়সল, মহানগর সিনিয়র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আজমল বখত্ চৌধুরী সাদেক, জেলা যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মামুনুর রশীদ মামুন, মহানগর যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট শামীম সিদ্দীকি, এডভোকেট আতিকুর রহমান সাবু, হুমায়ুন আহমদ মাসুক, জেলা যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ইশতিয়াক আহমদ সিদ্দীকি, জেলা সাংগঠনিক সম্পাদক এমরান আহমদ চৌধুরী, মহানগর সাংগঠনিক সম্পাদক মিফতাহ সিদ্দীকি, জেলা সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুল আহাদ খান জামাল, আবুল কাশেম, শামীম আহমদ, মহানগর সাংগঠনিক সম্পাদক মুকুল মোর্শেদ প্রমুখ।

সভাপতির বক্তব্যে নাসিম হোসাইন বলেন- অবৈধ ফ্যাসিষ্ট সরকার গণতন্ত্রের অতন্দ্র প্রহরী দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে ষড়যন্ত্রমুলক মামলার ফরমায়েসী রায়ে কারাগারে আটকে রেখেছে। দেশের বিধ্বস্ত গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার আন্দোলন বাধাগ্রস্থ করতেই দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি নিয়ে সরকার টালবাহানা শুরু করেছে। জনতার ধৈর্য্যরে বাধ ভাঙ্গার আগেই দেশনেত্রীকে মুক্তি দিতে হবে। অন্যথায় জণগনই পরবর্তী করনীয় ঠিক করতে বাধ্য হবে।

সাবেক এমপি দিলদার হোসেন সেলিম বলেন- দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া ও গণতন্ত্র একই সুত্রে গাথা। বেগম খালেদা জিয়াকে নয় এদেশের বিধ্বস্ত গণতন্ত্রকে ষড়যন্ত্রমুলক মামলার ফরমায়েসী রায়ে কারাগারে আটকে রাখা হয়েছে। গণতন্ত্রের স্বার্থেই আপোষহীন নেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে মুক্ত করতে দেশপ্রেমিক জনতাকে রাজপথে নামতে হবে।

আবুল কাহের চৌধুরী শামীম বলেন- তিন বারের সাবেক সফল প্রধানমন্ত্রী দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে কারাগারে আটকে রেখে বাংলাদেশের মাটিতে কোন নির্বাচন হতে দেয়া হবেনা। বিএনপি চেয়ারপার্সন দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি নিয়ে টালবাহানার পরিনতি ভাল হবেনা। সময় থাকতে সরকারের শুভ বুদ্ধির উদয় না হলে কঠোর মুল্য দিতে হবে।

বদরুজ্জামান সেলিম বলেন- এদেশে স্বৈরাচারী ও বাকশালের পরিনতি কখনো ভাল হয়নি। দেশের গণতন্ত্রকামী জনতার নেত্রী গণতন্ত্রের মা দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি নিয়ে আর কোন ষড়যন্ত্র মেনে নেয়া হবেনা। অবিলম্বে দেশনেত্রীকে নিঃশর্ত মুক্তি দিতে হবে।

ফেসবুক থেকে মতামত দিন

নববার্তা.কম এর সংবাদ পড়তে লাইক দিন নববার্তা এর ফেসবুক ফান পেজে

আরও অন্যান্য সংবাদ




টুইটর




Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com