Web Analytics

,

ছয় মাসেও সংস্কার হয়নি সিলেট এমসি কলেজের শহীদ শ্রীকান্ত ছাত্রাবাস

শতবছরের ঐতিহ্যবাহী সিলেট মুরারিচাঁদ (এমসি) কলেজ ছাত্রাবাসের ৪র্থ ব্লক ও ৫ম ব্লক সংস্কার হলেও এখনো সংস্কার হয়নি শহীদ শ্রীকান্ত ব্লকের ভাঙচুরকৃত দরজা-জানালা।

ছাত্রাবাস ঘুরে দেখা গেছে, গত বছরের জুলাই মাসে কলেজ ছাত্রলীগের দু’গ্রুপের অভ্যন্তরীণ দ্বন্দ্বে ভাঙচুর হওয়া শহীদ শ্রীকান্ত ছাত্রাবাসের রুমের দরজা-জানালাগুলোর সংস্কার করা হয়নি। ছাত্রাবাসের নয়টি রুমের দরজা এবং পাঁচটি জানালায় শিক্ষার্থীরা শক্ত কাগজ, বোর্ড দিয়ে রেখেছেন।

ছয় মাস ধরে ভাঙচুরকৃত দরজা-জানালার রুমে বসবাসরত আবাসিক শিক্ষার্থীরা বলেন, তীব্র শৈত্যপ্রবাহে কাঁপছে পুরো দেশ। ভাঙচুর হওয়া এসব দরজা-জানালা দিয়ে রাতের বেলা হিম শীতল বাতাস ডুকে, রুমে রাতের বেলা থাকা কষ্টকর হয়ে যায়। শিশিরে ভিজে অনেক সময় দরজা জানালায় তালি দেয়া কাগজগুলোও পড়ে যায়। সম্প্রতি এসব কারণে ঠাণ্ডাজনিত রোগেও আক্রান্ত হচ্ছেন শিক্ষার্থীরা।

সম্প্রতি ভাঙচুর হওয়া ছাত্রাবাসের ৪র্থ ব্লক নিয়ে ফের আলোচনা শুরু হলে জাতিসংঘে নিযুক্ত বাংলাদেশের সাবেক স্থায়ী প্রতিনিধি এ. কে মোমেন, কলেজ অধ্যক্ষ প্রফেসর নিতাই চন্দ্র চন্দ ও উপাধ্যক্ষ প্রফেসর আব্দুল কুদ্দুছ উপস্থিত থেকে ছাত্রাবাসের ৪র্থ ব্লক সংস্কার কাজের শুরু করান, যা ইতোমধ্যে শেষ হওয়ার তিনদিন পেরিয়েছে।

শহীদ শ্রীকান্ত ছাত্রাবাসের শিক্ষার্থীরা ছাত্রাবাসের শিক্ষার্থীরা ভাঙচুর হওয়া দরজা-জানালা দ্রুত সংস্কারের দাবী জানান। ছাত্রাবাসের তত্ত্বাবধায়ক সুনীল ইন্দু অধিকারী বলেন, তহবিল সংকটের কারণে সংস্কার কাজ শুরু করা যাচ্ছে না।

উল্লেখ্য, গত বছরের জুলাই মাসে এমসি কলেজ ছাত্রলীগের অভ্যন্তরীণ দ্বন্দ্বে দু’গ্রুপের সংঘর্ষে ভাঙচুর করা হয় কলেজ ছাত্রাবাসের ৩টি ব্লকের ৩৯ টি কক্ষের দরজা-জানালা। এর কয়েক মাস পর ৫নং ব্লক টিন ও শিট দিয়ে সংস্কার করে কর্তৃপক্ষ। গত ১৩ জানুয়ারি সংস্কার করা হয় ছাত্রাবাসের ৪র্থ ব্লক।

ফেসবুক থেকে মতামত দিন

নববার্তা.কম এর সংবাদ পড়তে লাইক দিন নববার্তা এর ফেসবুক ফান পেজে

আরও অন্যান্য সংবাদ




টুইটর




Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com