,

রাজাপুর গুচ্ছগ্রামে আগুন!! পুড়ে গেল ১০ অসহায় পরিবারের শেষ সম্বল !

মে.অহিদ সাইফুল,রাজাপুর ঃ যারা অসহায় হত দরিদ্র আর নিস্ব, তাদের সরকার আশ্রয় দেয়ার জন্য আবাসন বা আশ্রয়ন প্রকল্পে ঘর নির্মান করে দেন। একটু মাথা গোঁজার ঠাই পেয়ে নিত্যান্ত বাঁচার লড়াই চলে ওদের। তবে ভাগ্যের নির্মম পরিহাসে সেই শেষ সম্বলটুকুও কখনো হারাতে হয়। রোববার দুপুরে ঝালকাঠির রাজাপুরের বাঁশতলা আশ্রয়ন প্রকল্পে অগ্নিকান্ডে ১০টি বসতঘর পুড়ে গেছে। এতে ওই পরিবারগুলোর সর্বস্ব পুড়ে যাওয়ার পাশাপাশি তাদের স্বপ্নও ছাই হয়ে গেছে। প্রাথমিকভাবে বৈদ্যুতিক সর্ট সার্কিট থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়েছে বলে ধারনা করছে ফায়ার সার্ভিসের কর্মকর্তারা। এতে ১৫লক্ষাধিক টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলে উপজেলা প্রশাসন ও ক্ষতিগ্রস্থরা দাবী করেছেন।
উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাদিকুর রহমান জানান, দুপুরে আশ্রয়নের পূর্বপাশের ফিরোজ হাওলাদারের বসতঘর থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়। পরে মুহুর্তেই পাশের ঘরগুলোতে আগুন ছড়িয়ে পরে। পরে স্থানীয় লোকজন ও ফায়ার সার্ভিসের কাউখালি ও ঝালকাঠির দুটি ইউনিট এসে দেড় ঘন্টার প্রচেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রনে আনে। আগুনে ১০টি বসতঘরের সর্বস্ব পুড়ে ছাই হয়ে যায়। এসময় আগুন নেভাতে গিয়ে তিন যুবক আহত হন।
ঝালকাঠি ও রাজাপুর প্রশাসনের উর্ধ্বতন কর্মকর্তা ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে ক্ষতিগ্রস্থদের সহায়তার আশ্বাস দিয়েছেন।
স্থানীয় সেলিম হাওলাদার জানান, ‘আমাদের ঘরের সবকিছু পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। আমরা আমাদের জীবন ছাড়া আর কিছু বাঁচাতে পারিনি। এখন সবকিছু হারিয়ে পরিবার নিয়ে রাস্তায় না খেয়ে থাকা ছাড়া আর কোন উপায় নেই।’
মঠবাড়ি ইউনিয়ন চেয়ারম্যান মোস্তফা কামাল সিকদার বলেন, ‘দশটি অসহায় পরিবারের সবকিছু পুড়ে গেছে। আমি এ বিষয়ে স্থানীয় সংসদ সদস্যের সাথে কথা বলেছি। প্রাথমিকভাবে যত শীগ্র পারা যায় তাদের সহযোগিতা করা হবে।’
উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এবিএম সাদিকুর রহমান বলেন, ‘ক্ষতিগ্রস্থদের তালিকা প্রস্তুত করা হচ্ছে। উপজেলা প্রশাসন থেকে প্রত্যেক পরিবারে জরুরিভাবে পাঁচ হাজার টাকা দেয়া হবে।’

ফেসবুক থেকে মতামত দিন

নববার্তা.কম এর সংবাদ পড়তে লাইক দিন নববার্তা এর ফেসবুক ফান পেজে

আরও অন্যান্য সংবাদ


Udoy Samaj

টুইটর




Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com