রবিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১০:০০ অপরাহ্ন

English Version
আগামীকাল সিলেট ৭২০ ইউপিতে ভোট

আগামীকাল সিলেট ৭২০ ইউপিতে ভোট



উদয় জুয়েল : আগের চার ধাপের মতোই সুষ্ঠু ভোট নিয়ে শঙ্কা ও নানা অভিযোগের মধ্যে আগামীকাল শনিবার সিলেটের ২টি উপজেলার ১৪ টি সহ দেশের বিভিন্ন জেলার ৭২০ ইউপিতে তৃণমূলের এ নির্বাচন হতে যাচ্ছে। আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা এরইমধ্যে নির্বাচনী এলাকায় টহল শুরু করেছেন।

শনিবার সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত একটানা ভোট চলবে। তিন হাজারের বেশি চেয়ারম্যান প্রার্থী এবং সাধারণ ও সংরক্ষিত সদস্য পদে প্রায় ৩০ হাজার প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন এ অনুষ্ঠানে।

পঞ্চম ধাপের ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে প্রার্থীদের প্রচার শেষ হয়েছে বৃহস্পতিবার মধ্যরাতে; শুক্রবার ভোটগ্রহণ কর্মকর্তারা কেন্দ্রে কেন্দ্রে পৌঁছে দিচ্ছেন ব্যালট পেপার, বাক্সসহ নির্বাচনী সরঞ্জাম।

ইউপি নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার পর থেকে গত সাড়ে তিন মাসে নির্বাচনী সহিংসতায় আশি জনের বেশি মানুষের প্রাণহানি ঘটেছে। সংঘর্ষ-হামলার ঘটনা ঘটছে প্রায় প্রতিদিনই।

উল্লেখ্য, পঞ্চম ধাপের ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে প্রার্থীদের প্রচার শেষ হয়েছে বৃহস্পতিবার মধ্যরাতে; শুক্রবার ভোটগ্রহণ কর্মকর্তারা কেন্দ্রে কেন্দ্রে পৌঁছে দিচ্ছেন ব্যালট পেপার, বাক্সসহ নির্বাচনী সরঞ্জাম।

নির্বাচন কমিশনার মো. শাহনেওয়াজ বলেন, ‘ভোটের দিন যত এগিয়ে আসে ততই গোলযোগের প্রবণতা বেড়ে যায়। কিছু কিছু অভিযোগও এসেছে আমাদের কাছে। সব বিষয়ে সজাগ রয়েছি আমরা। কেউ যেন প্রভাব বিস্তার করতে না পারে, গোলযোগের চেষ্টা না করে এবং দুষ্কৃতকারীদের বিরুদ্ধে যাতে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হয়- সে বিষয়ে মাঠ কর্মকর্তাদেরও নির্দেশ দিয়েছি।’

ভোটের সব ধরনের প্রস্তুতি গুছিয়ে আনা হয়েছে জানিয়ে আগের চার ধাপের তুলনায় সুন্দর ভোটের প্রত্যাশার কথা জানান এই নির্বাচন কমিশনার। তিনি বলেন, ‘আমরা নিয়মিতই মাঠ পর্যায়ের সার্বিক পরিস্থিতির খোঁজখবর নিচ্ছি। গোলযোগ হতে পারে- এমন সব এলাকায় প্রশাসন ও পুলিশকে বিশেষ তদারকির জন্য তাগাদা দিয়েছি। এখন সবার সহযোগিতা পেলে আরও ভালো ভোট হবে।’

রাজনৈতিক বিশ্লেষক মিজানুর রহমান শেলী বলেন, সহিংসতা ও অনিয়মের নেতিবাচক প্রভাব আগামীতেও পড়বে। আর তা হলে নির্বাচন নিয়ে আগ্রহ হারাবে মানুষ। তার ভাষায়, ‘ইসিকেই প্রমাণ করতে হবে যে সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ ভোট সম্ভব। মানুষের আস্থা অর্জনে ইসিকে এখনই পর্যাপ্ত ব্যবস্থা নিশ্চিত করতে হবে।’

বিএনপির পক্ষ থেকে বলা হচ্ছে, সুষ্ঠু ভোটের কোনো সম্ভাবনা তারা দেখছে না। তাদের ভাষায়, এখন ভোটের নামে ‘ডাকাতি’ চলছে।অন্যদিকে ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগ নির্বাচন ‘সুষ্ঠু হচ্ছে’ দাবি করে পাল্টা অভিযোগে বলেছে, বিএনপি এ ভোটকে ‘বিতর্কিত’ করতে ‘ষড়যন্ত্র’ করে আসছে।

Please Share This Post in Your Social Media




Leave a Reply



© 2018 Nobobarta । Privacy PolicyAbout usContact DMCA.com Protection Status
Design & Developed BY Nobobarta.com