মঙ্গলবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ০১:২৫ পূর্বাহ্ন

English Version
সংবাদ শিরোনাম :
আসন্ন নির্বাচনে ভালো প্রার্থী মনোনয়ন দিন : রাষ্ট্রপতি ইরানের প্রেসিডেন্টের সঙ্গে বৈঠক করতে চান ট্রাম্প শেখ হাসিনার অধীনে নির্বাচনে যেতে রাজি ড. কামাল দেশের উন্নয়নে প্রধান বাঁধা মাদক সন্ত্রাস- ড. মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারি মুন্সীগঞ্জে পুলিশের নারী ব্যারাক উদ্বোধন করলেন আইজিপি মহানগর যুবদল নেতা নয়নের অসুস্হ বাবার রোগমুক্তির জন্য দোয়া প্রার্থনা সিসিকের নতুন সিইও বিধায়ক রায় চৌধুরী সিলেট নগরীর বন্দরে রুই মাছের পেটে ৬১৪ পিস ইয়াবা, আটক ১ ঝালকাঠি -১ আসনে মনোনয়ন প্রত্যাশী মনিরুজ্জামানের ব্যাপক গনসংযোগ রাজাপুরে ১০ টাকা কেজির খাদ্য বান্ধব কর্মসূচির ১২ বস্তা চালসহ ২০ টি কার্ড জব্দ
নাটোরে মা ও নিজ সন্তানকে কুপিয়ে হত্যা

নাটোরে মা ও নিজ সন্তানকে কুপিয়ে হত্যা



মা ও ছেলেকে কুপিয়ে হত্যা ও পিতাকে কুপিয়ে আহত করেছে মাদকসেবী এক যুবক। নাটোর সদর উপজেলার দস্তানাবাদ ফকিরপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। নিহতের নাম বিলকিস বেগম (৪২) ও আলিফ সর্দার (১০)। এ ঘটনার সঙ্গে জড়িত আলম সর্দারকে (২৮) আটক করেছে পুলিশ। আহত শাহাদাৎ সর্দারকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

নাটোর থানা পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, রবিবার রাত আটটার দিকে দস্তানাবাদ ফকিরপাড়া গ্রামের শাহাদৎ সর্দারের বাড়িতে হৈ চৈ শুনে গ্রামবাসী সেখানে যায়। এ সময় ওই বাড়িতে আলম সর্দারের ছেলে পিএসসি সমাপনী পরীক্ষার্থী আলিফ সর্দার (১১) ও তার দাদী বিলকিস বেগমকে গলাকাটা অবস্থায় দেখতে পান। ঘটনার সময় আলমের বাবা সাহাদৎ সর্দার বাড়ির বাইরে ছিলেন। খবর পেয়ে তিনি বাড়িতে ঢোকা মাত্র তাকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে গলায় আঘাত করে নিজের ছেলে আলম সর্দার। রক্তাক্ত অবস্থায় গ্রামবাসী তাকে উদ্ধার করে নাটোর সদর হাসপাতালে পাঠায়। পরে তাৎক্ষনিক তাকে রামেক হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। গ্রামবাসী আলম সর্দারকে আটক করে পুলিশকে খবর দেয়। পরে পুলিশ গিয়ে তাকে হেফাজতে নেয়।

গ্রামের লোকজন জানান, আলম সর্দার ও তার বাবার মধ্যে বিরোধের জের ধরে আলম তার বউকে তালাক দেয়। বাবা-ছেলের মধ্যে আদালতে মামলাও চলছিল। সম্প্রতি বাবার জমিতে আলম নতুন বাড়ি তৈরী করলে সেই জমিও অন্য জায়গায় বাবা বিক্রি করে দেয়ার চেষ্টা করে। সম্প্রতি সে বাবা-মাকে তাদের জমি রেজিষ্ট্রি করে দেয়ার চাপ দিচ্ছিল। যার জের ধরেই এসব হত্যাকান্ড হতে পারে।  নাটোর আধুনিক সদর হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. কাজী মোহাম্মদ আলী রাসেল জানিয়েছেন, শাহাদৎ সর্দারের আঘাত খুবই গুরুতর হওয়ায় তাকে তাৎক্ষনিক রামেক হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। নাটোর সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সিকদার মশিউর রহমান খুনের বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, অভিযুক্ত খুনিকে গ্রেপ্তার করে থানা হেফাজতে রাখা হয়েছে। নিহতদের লাশ ময়না তদন্তের জন্য প্রস্তুতি চলছে। মামলার প্রস্তুতিও চলছে। নাটোর সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আবুল হাসনাত বলেন, নেশাগ্রস্থ শাহ আলম ইয়াবা আসক্তিতে ছিল। পারবারিক বিরোধকে কেন্দ্র করে এই নৃংশংস হত্যাকান্ড।

Please Share This Post in Your Social Media




Leave a Reply



© 2018 Nobobarta । Privacy PolicyAbout usContact DMCA.com Protection Status
Design & Developed BY Nobobarta.com