কাউখালীতে বিজয়ের মাসকে ঘিরে জাতীয় পতাকা বিক্রির ধুম

কাউখালী প্রতিনিধি: বিজয়ের মাস ডিসেম্বরে মানুষ বাড়ির ছাদে, গাড়ির সামনে জাতীয় পতাকা টানিয়ে রাখে। ১৬ ডিসেম্বর সব অফিস ও প্রতিষ্ঠানে টানানো হয় জাতীয় পতাকা। তাই বিজয়ের মাসে লাল সবুজের জাতীয় পতাকার চাহিদা থাকে বেশি। বিজয়ের মাসকে ঘিরে ধুম পড়ে জাতীয় পতাকা বিক্রির। কয়েক ফুট লম্বা বাঁশের ওপর থেকে নিচ পর্যন্ত পর্যায়ক্রমে বড় থেকে ছোট আকারের পতাকা সাজিয়ে পথে পথে ঘুরে পতাকা বিক্রি করছেন মৌসুমী ব্যবসায়ীরা।

জাতীয় পতাকা বিক্রির উদ্দেশ্যে মঙ্গলবার দুপুরে পিরোজপুরের কাউখালী টেম্পু স্টান্ডে দাঁড়িয়ে ছিলেন ছিপছিপে গড়নের এক যুবক। উত্তরের হিমবাতাসে পতপত করে উড়ছিল বাঁশের সঙ্গে বেঁধে রাখা পতাকা। আকার ভেদে একেকটি পতাকা ২০ থেকে ২০০ টাকা আর ব্যাচ বিক্রি হয় ১০ টাকা করে। কথা হয় মৌসুমী পতাকা বিক্রেতা ইলিয়াসের সঙ্গে। তার ভাষ্যমতে, পতাকা উড়তে দেখে অনেকের মনই উতলা হয়ে ওঠে। বিজয় দিবসের আনন্দে তাই অনেকে সেই পতাকা কিনে বাড়ির ছাদ, বেলকনি, গাড়ি, রিকশা ও মোটরসাইকেলের সামনে ওড়াতে চান। এই সুবাদে তার মতো মৌসুমী পতাকা বিক্রেতাদের বাড়তি উপার্জনের মাধ্যম হয়ে দাঁড়ায় লাল-সবুজের পতাকা।

বাড়ি কোথায় প্রশ্ন করতেই ইলিয়াস বলেন, তিনি এই জেলার অধিবাসী নন। তার বাড়ি ফরিদপুর জেলায়। তবে অন্য কোনো কারণে নয়, মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে কেবল জাতীয় পতাকা বিক্রি করতেই কাউখালীতে এসেছেন ফরিদপুরের এই অধিবাসী।

ফেসবুক থেকে মতামত দিন

নববার্তা.কম এর সংবাদ পড়তে লাইক দিন নববার্তা এর ফেসবুক ফান পেজে

আরও অন্যান্য সংবাদ




টুইটর




Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com