সোমবার, ২৮ মে ২০১৮, ০১:২৬ পূর্বাহ্ন



আদালতের নিষেধাজ্ঞা অগ্রাহ্য-দুমকিতে প্রকাশ্যে চলছে ওয়াল নির্মাণের কাজ

আদালতের নিষেধাজ্ঞা অগ্রাহ্য-দুমকিতে প্রকাশ্যে চলছে ওয়াল নির্মাণের কাজ



দুমকি (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি॥ পটুয়াখালীর দুমকিতে আদালতের নিষেধাজ্ঞা অগ্রাহ্য করে এক অসহায় পরিবারের জবরদখলকৃত জমিতে প্রকাশ্যে চলছে প্রতিপক্ষের ঘরবাড়ি ও বাউন্ডারী ওয়াল নির্মাণের কাজ। বাঁধা দিতে গেলে স্বগোত্রীয় প্রতিপক্ষের ভাড়াটে সন্ত্রাসী কর্তৃক অসহায় গৃহকর্তাকে এলোপাথারী পিটিয়ে গুরুতর জখমের পর হাসপাতালে পাঠিয়ে নির্বিঘেœ চলছে তাদের নির্মাণ কাজ। এ যেন মগের মুল্লুক, পেশী শক্তি আর গায়ের জোড়ে প্রকাশ্যে চলছে এমন দখল দারিত্বের মহড়া।

স্থানীয় সূত্রে জানাযায়, উপজেলা আঙ্গারিয়া বন্দর সংলগ্ন মীরা বাড়ির আবদুর রব মীরা ও একই বাড়ির তোরাপ মীরার বসত:বাড়ির সীমানা বিরোধ চলছিল। সম্প্রতি বিরোধীয় সীমানার গাছ কেটে বাউন্ডারী ওয়াল নির্মাণ চেষ্টা করলে আ: রব মীরা বাঁধা দেয়। এ সময় প্রতিপক্ষ তোরাপ মীরার নেতৃত্বে আকাব্বর, জাহাঙ্গীর, খলিলসহ ৮/১০জনের একটি স্বশস্ত্র সন্ত্রাসী বাহিনী এলোপাথারী পিটিয়ে ও কুপিয়ে তাঁকে (রব মীর) গুরুতর জখম করে। স্থানীয়রা গুরুতর আহতকে পটুয়াখালী হাসপাতালে পাঠালে অবস্থার ক্রমাবনতিতে বরিশাল শেরে-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছে। এ ব্যাপারে দুমকি থানায় ও কোর্টে মামলা চলমান আছে। বিরোধীয় জমিতে আদালত নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে। এদিকে আদালতের নিষেধাজ্ঞা সত্ত্বেও সুযোগ সন্ধানী তোরাপ মীরা গং প্রতিপক্ষের আ: রব মীরা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বিরোধীয় সীমানা দখল করে প্রকাশ্যে বাউন্ডারী ওয়াল নির্মাণ করেছে।

সোমবার বেলা সাড়ে ১১টায় সরেজমিন, আঙ্গারিয়া বন্দর সংলগ্ন হাইস্কুলের পার্শ্ববর্তী এলাকার ঘটনাস্থল পরিদর্শণকালে দেখা যায়, বিরোধীয় সীমানা অতিক্রম করে বাউন্ডারী ওয়াল নির্মাণ ও ভেতরে পাকা বাড়ি নির্মাণের কাছ চলছে। আহত রব মীরের স্ত্রী ফরিদা বেগম অভিযোগ করে বলেন, প্রতিপক্ষের লোকজন আমার স্বামীকে কুপিয়ে-পিটিয়ে জখম করে হাসপাতালে পাঠিয়ে গায়ের জোড়ে আমাদের জমি দখল করে নিয়েছে। তারা কোন বাধা বিপত্তি মানছে না। স্থানীয় সমাজ সেবক ও সুশীল সমাজের প্রতিনিধি আবদুল মান্নান জোমাদ্দার এ দখল দাড়িত্বের বিষয়ে বলেন, এটি সম্পূর্ণ অন্যায় এবং অমানবিক। ভাইয়ে ভাইয়ে বিরোধ হতেই পারে-তাইবলে জীবনে শেষ করে দিয়ে সম্পদ দখল অত্যন্ত দু:খ জনক। দুমকি থানার অফিসার ইনচার্জ দিবাকর চন্দ্র দাস মামলার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, তদন্ত চলছে। অভিযুক্তের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে। নিষেধাজ্ঞা লঙ্ঘণ প্রশ্নের জবাবে বলেন, উভয় পক্ষকে স্থিতিঅবস্থা বজায় রাখতে নোটিশ দেয়া হয়েছে। কোন পক্ষ অগ্রাহ্য করলে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

ফেসবুক থেকে মতামত দিন

Please Share This Post in Your Social Media








© 2018 Nobobarta । Privacy PolicyAbout usContact DMCA.com Protection Status
Design & Developed BY Nobobarta.com