রবিবার, ২২ Jul ২০১৮, ০৫:২৪ পূর্বাহ্ন

English Version


চট্টগ্রামে ইয়াবা আত্মসাতের অভিযোগে এসআই বরখাস্ত

চট্টগ্রামে ইয়াবা আত্মসাতের অভিযোগে এসআই বরখাস্ত



চট্টগ্রামে জব্দ ইয়াবা ট্যাবলেট আত্মসাতের অভিযোগে পুলিশের এক উপ-পরিদর্শক (এসআই)কে সাময়িক বরখাস্ত ও আরেক উপ-পরিদর্শক (এসআই)সহ তিন কনস্টেবলকে ক্লোজড করা হয়েছে।

পুলিশের দায়িত্বশীল সূত্রে জানা যায়, গত ৮ মে চট্টগ্রামের বার আউলিয়া হাইওয়ে পুলিশের উপ-পরিদর্শক মো. মহিউদ্দিনকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। একই অভিযোগে চট্টগ্রামের বার আউলিয়া হাইওয়ে পুলিশের উপ-পরিদর্শক আদম আলী এবং কনস্টেবল মামুন, ইমাম হোসেন ও মোস্তফাকে পুলিশ লাইনে ক্লোজড করা হয়েছে।

জানা গেছে, গত ৭ মে বিকেলে চট্টগ্রামের বার আউলিয়া হাইওয়ে পুলিশের উপ-পরিদর্শক মো. মহিউদ্দিনের নেতৃত্বে ৫ সদস্যের একটি দল মহাসড়কে দায়িত্ব পালন করছিলেন। রাত ৩টার দিকে উপজেলার মাদাম বিবির হাট এলাকায় ঢাকামুখী শ্যামলী পরিবহন (চট্টমেট্টো ব ৫১-২১৫৫) বাসে অভিযান চালায় পুলিশ। এসময় ২১ হাজার ৮০০ পিস ইয়াবাসহ মো. মোস্তাকিম (৩৬) নামের এক ব্যক্তিকে যুবককে আটক করা হয়। পরে ইয়াবাগুলো রেখে ছেড়ে দেয়া হয় তাকে।

এদিকে পূর্ব থেকে ওৎপেতে থাকা ইয়াবা পাচারকারী মোস্তাকিমকে পর্যবেক্ষণ করছিলেন গোয়েন্দা পুলিশের একটি টিম। হাইওয়ে পুলিশের কাছ থেকে ছাড়া পাওয়া ওই বাসটি ঢাকার কাছেই তল্লাশি করে গোয়েন্দা পুলিশ। তবে মোস্তাকিমের কাছে ইয়াবা না পেয়ে তাকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। হাইওয়ে পুলিশ ইয়াবা রেখে তাকে ছেড়ে দিয়েছে বলে মোস্তাকিম গোয়েন্দা পুলিশকে জানান।

এ তথ্য নিশ্চিত হয়ে গোয়েন্দা পুলিশ বিষয়টি তদন্তের জন্য কুমিল্লা হাইওয়ে পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের অনুরোধ করেন। গোয়েন্দাদের আবেদনে সাড়া দিয়ে পাচারকারী মোস্তাকিমকে নিয়ে চট্টগ্রামের বার আউলিয়া হাইওয়ে থানায় আসেন কুমিল্লা হাইওয়ে পুলিশের ডিআইজি আতিকুল ইসলাম, কুমিল্লার এসপি নজরুল ইসলামসহ পুলিশের কর্মকর্তারা।

সেখানে মোস্তাকিম আর বার আউলিয়া হাইওয়ে পুলিশের মুখোমুখি করা হয়। এরপর এসআই মহিউদ্দিনকে প্রত্যাহার করে কুমিল্লা হাইওয়ে পুলিশ লাইনে সংযুক্ত করা হয়। আটক ইয়াবার মূল্য ৬৬ লাখ টাকা। মোস্তাকিম গাজীপুর জেলা সদরের বারান্ডা গ্রামের তসলিম উদ্দিন খোন্দকারের ছেলে। হাইওয়ে পুলিশের কুমিল্লার পুলিশ সুপার নজরুল ইসলাম জানান, এসআই মহিউদ্দিনকে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করা হয়েছে।

অভিযুক্ত এসআই আদম আলী ও ৩ কনস্টেবলের বিরুদ্ধে ৩ দিন ধরে তদন্ত শেষে শুক্রবার রাত ১০টার দিকে তাদেরকে হাইওয়ে থেকে প্রত্যাহার করে জেলা পুলিশ লাইনে পাঠানো হয়েছে। বার আউলিয়া হাইওয়ে পুলিশের অফিসার ইনচার্জ আহসান হাবিব বলেন, যাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠেছে তাদের প্রত্যাহার করে নেয়া হয়েছে।

ফেসবুক থেকে মতামত দিন

Please Share This Post in Your Social Media




ফুটবল স্কোর



© 2018 Nobobarta । Privacy PolicyAbout usContact DMCA.com Protection Status
Design & Developed BY Nobobarta.com