বুধবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ০৯:২১ অপরাহ্ন

English Version
সংবাদ শিরোনাম :
লক্ষ্মীপুরে গৃহবধুর লাশ হাসপাতালে রেখে পালিয়েছে স্বামী

লক্ষ্মীপুরে গৃহবধুর লাশ হাসপাতালে রেখে পালিয়েছে স্বামী



লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি:  লক্ষ্মীপুরে যৌতুকের দাবীতে জোসৎনা বেগম গৃহবধুকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে স্বামী সুজনসহ শ^শুরবাড়ির লোকজনের বিরুদ্ধে। আজ শনিবার সকালে গৃহবধুর লাশ সদর হাসপাতালে রেখে পালিয়ে যায় স্বামী সুজনসহ অন্যরা। সদর উপজেলার পিয়ারাপুর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে । নিহতের লাশ উদ্ধার করে সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে পুলিশ।

নিহতের স্বজন ও পুলিশ জানায়, বিয়ের পর থেকে গৃহবধু জোসৎনা বেগম ও তার পরিবারকে যৌতুকের জন্য চাপ দেয় স্বামী সুজনসহ শ^শুরবাড়ির লোকজন। এ নিয়ে প্রায় জোসৎনা বেগমকে শারীরিক ও মানষিক নির্যাতন চালাত স্বামীসহ শ^শুরবাড়ির লোকজন । যৌতুকের জন্য ঘটনার আগের দিন শুক্রবার দিনে এবং রাতে স্বামী সুজনসহ অন্যরা একাধিক বার তাকে নির্যাতন চালানো হয় বলে অভিযোগ করেন নিহতের স্বজনরা। এক পর্যায়ের রাতের কোন এক সময়ে জোসৎনা বেগমকে পিটিয়ে হত্যা করে তারা। এ ঘটনা ধামা-চাপা দেয়ার জন্য সকালে নিহতের লাশ সদর হাসপাতালে নিয়ে আসে স্বামী সুজন ও পরিবারের অন্যরা। সদর হাসপাতালের জরুরী বিভাগে জোসৎনার লাশ রেখে পালিয়ে যায় সুজন ও শ^শুরবাড়ির লোকজন। খবর পেয়ে পুলিশ নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠায়।

এ দিকে সদর হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. আনোয়ার হোসেন জানান, সকালে জোসৎনা বেগম নামে এক গৃহবধুকে মৃত হাসপাতালের জরুরী বিভাগে নিয়ে আসে তার স্বামী সুজন। পরে হাসপাতালে তার লাশ রেখে পালিয়ে যায়।

সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. লোকমান হোসেন জানান, নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Please Share This Post in Your Social Media




Leave a Reply



© 2018 Nobobarta । Privacy PolicyAbout usContact DMCA.com Protection Status
Design & Developed BY Nobobarta.com