Web Analytics

,

চট্টগ্রাম উপকূল অতিক্রম করছে ঘূর্ণিঝড় ‘রোয়ানু’

ঘূর্ণিঝড় ‘রোয়ানু’ শনিবার চট্টগ্রাম,বরগুনা ও পটুয়াখালী উপকূল অঞ্চল অতিক্রম করছে জানিয়েছে ঘূর্ণিঝড় প্রস্তুতি কর্মসূচি-সিপিপি। বাতাসের একটনা গতিবেগ ঘণ্টায় ৮০ কি.মি.। সন্ধ্যা ৬টা নাগাদ ঝড় থেমে যাবে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অফিস। বেলা ১১টার দিকে, পটুয়াখালী ও ভোলায় বাঁধ ভেঙে ২০টি গ্রাম প্লাবিত হয়েছে। ৩৫০০ সাইক্লোন সেলটারে প্রায় ৫ লাখ মানুষ আশ্রয় নিয়েছেন।

আবহাওয়া অধিদপ্তরের পরিচালক সামছুদ্দিন আহমেদ শনিবার বেলা দেড়টায় বলেন, ঘূর্ণিঝড়টি উপকূল অতিক্রম শুরু করছে– রোয়ানু চট্টগ্রম উপকূলের সন্দ্বীপ, হাতিয়া, কুতুবদিয়া, সীতাকুণ্ডু ও ফেনী উপকূল দিয়ে স্থলভাগে উঠে আসছে। আর উপকূলের কাছাকাছি আসার পর এ ঘূর্ণিঝড় দ্রুত স্থলভাগের দিকে এগোতে শুরু করে। ঝড়ের পুরো পরিধি স্থলভাগে উঠে আসতে বিকেল পেরিয়ে যেতে পারে বলে।

ঘূর্ণিঝড়ের প্রভাবে চট্টগ্রামসহ উপকূলীয় জেলাগুলোতে বইছে ঝড়ো বাতাস, সেই সঙ্গে চলছে বৃষ্টি। উপকূলীয় এলাকার নিম্নাঞ্চল স্বাভাবিক জোয়ারের চেয়ে তিন থেকে চার ফুট বেশি উচ্চতার জলোচ্ছ্বাসে প্লাবিত হয়েছে বলে জানান তিনি। সামছুদ্দিন আহমেদ বলেন, উপকূল অতিক্রম করার সময় ভারি বৃষ্টি ঝরিয়ে ঘূর্ণিঝড়টি ধীরে ধীরে দুর্বল হয়ে স্থল নিম্নচাপে পরিণত হবে। ভোর থেকেই দেশের উপকূলীয় জেলাগুলোতে ঝড়ো হাওয়া বয়ে যাচ্ছে— দেশের দক্ষিণাঞ্চল এবং রাজধানীসহ বিভিন্ন জায়গায় অবিরাম বৃষ্টি হচ্ছে।

আবহাওয়া অধিদপ্তরের বিশেষ বুলেটিনে বলা হয়েছে, ঘূর্ণিঝড় রোয়ানু আরো পূর্ব-উত্তরপূর্ব দিকে এগিয়ে এসে বরিশাল-চট্টগ্রাম উপকূল অতিক্রম করছে। ঘূর্ণিঝড় কেন্দ্রের কাছে সাগর খুবই উত্তাল রয়েছে—পিরোজপুর, ঝালকাঠি, বাগেরহাট, খুলনা, সাতক্ষীরা এবং অদূরবর্তী দ্বীপ ও চরগুলোর নিম্নাঞ্চল স্বাভাবিক জোয়ারের চেয়ে ৪ থেকে ৫ ফুট বেশি উচ্চতার জলোচ্ছ্বাসে প্লাবিত হচ্ছে। চট্টগ্রাম, মংলা ও পায়রা সমুদ্র বন্দরকে আগের মতোই ৭ নম্বর এবং কক্সবাজার সমুদ্র বন্দরকে ৬ নম্বর বিপদ সংকেত রয়েছে।

আবহাওয়ার বিশেষ বুলেটিনে সকাল ৬টায় ঘূর্ণিঝড়টি চট্টগ্রাম সমুদ্র বন্দর থেকে ২৫৫ কিলোমিটার পশ্চিম-দক্ষিণপশ্চিমে, কক্সবাজার সমুদ্রবন্দর থেকে ২৩০ কিলোমিটার পশ্চিম-দক্ষিণপশ্চিমে, মংলা সমুদ্রবন্দর থেকে ১৯০ কিলোমিটার দক্ষিণে এবং পায়রা সমুদ্র বন্দর থেকে ১৩৫ কিলোমিটার দক্ষিণে অবস্থান করছিল। ঘূর্ণিঝড় উপকূল অতিক্রম করার সময় কক্সবাজার, চট্টগ্রাম, নোয়াখালী, লক্ষ্মীপুর, ফেনী, চাঁদপুর, বরগুনা, পটুয়াখালী, ভোলা, বরিশাল, পিরোজপুর জেলা এবং সংলগ্ন দ্বীপ ও চরগুলোতে ভারি থেকে অতি ভারি বর্ষণ হচ্ছে। ঘণ্টায় ৬২ থেকে ৮৮ কিলোমিটার বেগে বয়ে যাচ্ছে ঝড়ো হাওয়া।

এর আগে আবহাওয়া অধিদপ্তর জানায়, পরবর্তী ৪৮ ঘণ্টায় খুলনা, বরিশাল, চট্টগ্রাম, সিলেট ও ঢাকা বিভাগের কোথাও কোথাও ভারি থেকে অতি ভারি বর্ষণ হবে। অতি ভারি বর্ষণে চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের পাহাড়ি এলাকার কোথাও কোথাও ভূমিধসেরও শঙ্কা রয়েছে বলে পূর্বাভাসে সতর্ক করা হয়েছে।

খারাপ আবহাওয়ার কারণে মংলা ও চট্টগ্রাম বন্দরের মালামাল খালাস বন্ধ রয়েছে। চট্টগ্রাম শাহ আমানত বিমানবন্দরের কার্যক্রম অব্যাহত থাকলেও সতর্কতামূলক সব প্রস্তুতি নিয়ে রাখা হয়েছে। প্রতিকূল আবহাওয়ায় সব ধরনের নৌ চলাচল বন্ধ ঘোষণা করেছে বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌচলাচল কর্তৃপক্ষ। সব মাছ ধরার নৌকা ও ট্রলারকে নিরাপদ আশ্রয়ে থাকতে নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

উপকূলে ঘূর্ণিঝড় ; রোয়ানু’র প্রস্তুত

জ্যেষ্ঠ আবহাওয়াবিদ আবদুল মান্নান বলেন, এ নিয়ে বেশি আতঙ্কিত হওয়ার কিছু নেই। আশা করি, ঝড়ো আবহাওয়ায় জানমালের ক্ষতি হবে না বাংলাদেশে। সরকারও ইতোমধ্যে দুর্যোগ মোকাবেলায় পর্যাপ্ত ব্যবস্থা নিয়েছে। দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. শাহ কামাল জানিয়েছেন, দুর্যোগ মোকাবেলায় ‘সব ধরনের প্রস্তুতি’ রাখা হচ্ছে। ১৮ জেলার সাড়ে ২১ লাখ মানুষকে নিরাপদ আশ্রয়ে সরিয়ে নেয়া হচ্ছে ৩৮৫১টি আশ্রয়কেন্দ্রে। প্রচার করা হচ্ছে সতর্কবার্তা।

দুর্যোগ মোকাবেলার আগাম প্রস্তুতি হিসেবে উপকূলীয় জেলাগুলোয় সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সাপ্তাহিক ছুটি বাতিল করা হয়েছে। উপজেলা ও ইউনিয়ন পর্যায়ে ঘূর্ণিঝড় প্রস্তুতি কমিটির (সিপিপি) ৫৫ হাজার স্বেচ্ছাসেবক ছাড়াও রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি, রোভার স্কাউট ও আনসার ভিডিপির কর্মীরা কাজ করছেন একসঙ্গে। জেলা-উপজেলা-ইউনিয়ন পর্যায়ের দুর্যোগ মোকাবেলা সংক্রান্ত কমিটিকে প্রয়োজনীয় সহায়তা দিতে কর্মকর্তাদের নিজ নিজ কর্মস্থলে থাকার নির্দেশনা দিয়েছে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়। উপকূলীয় এলাকার বিভাগীয় কমিশনার ও জেলা প্রশাসকদের শুকনো খাবার ও খাবার পানি প্রস্তুত রাখতে বলা হয়েছে।

ফেসবুক থেকে মতামত দিন

নববার্তা.কম এর সংবাদ পড়তে লাইক দিন নববার্তা এর ফেসবুক ফান পেজে

আরও অন্যান্য সংবাদ




টুইটর




Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com