,

ঝিনাইদহে পৃথক সংঘর্ষে পুলিশ ও মহিলাসহ আহত ৩৫ : ১০টি বসতঘর ভাংচুর : পুলিশের গুলিবর্ষণ !

স্টাফ রিপোর্টার, ঝিনাইদহ # ঝিনাইদহের শৈলকুপায় রানীনগর ও নওপাড়া গ্রামে পৃথক দুটি সংঘর্ষের ঘটনায় পুলিশ সদস্য ও মহিলাসহ আহত হয়েছে ৩৫ জন। সংঘর্ষে ১০ টি বাড়িঘর ভাংচুরের ঘটনা ঘটেছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে পুলিশ ২১ রাউন্ড শর্টগানের গুলি বর্ষণ ও ৬ রাউন্ড টিয়ার সেল নিক্ষেপ করে। এছাড়াও পুলিশের গুলিতে ৩ জন আহত হয়েছে। জানা গেছে, মির্জাপুর ইউনয়নের রানীনগর গ্রামে সোমবার সকালে সামাজিক কোন্দলকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। সংঘর্ষে ১০টি বসতঘর ভাংচুুরের ঘটনা ঘটে। এসময় পুলিশ সদস্য মোহাম্মদ আলী, মনোরা বেগম ও সাথী আক্তারসহ ৫ জন আহত হয়। আহতরা শৈলকুপা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, সামাজিক মাতব্বর সিদ্দিক মোল¬া ও বাবুল জোয়ার্দ্দার একত্রিত হয়ে প্রতিপক্ষ মাতব্বর লতিফ বিশ্বাসের দলীয় লোকজনের বাড়ীতে দলবল নিয়ে হামলা চালায়। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গেলে হামলাকারীরা পুলিশকে লক্ষ্য করে ইট-পাটকেল ছোড়ে। এতে মোহাম্মদ আলী নামের এক পুলিশ সদস্য আহত হয়। সামাজিক মাতব্বর লতিফ বিশ্বাস জানান, নাজের মন্ডল, ওয়াজেদ বিশ্বাস, আক্কাস মন্ডল, মনিরুল, খোকন, এরশাদ ও তার বাড়ীসহ মোট ১০ জনের বসতবাড়ীতে হামলাকারীরা ভাংচুর ও লুটপাট চালায়।

তিনি আরো জানান, তাদের সামাজিক দল ছোট হওয়ায় প্রতিপক্ষরা তাদেরকে বাড়ীতে অবরুদ্ধ করে রেখেছে। বাড়ীর বাইরে বের হলে হত্যার হুমকি দিচ্ছে। এ ছাড়াও প্রতিপক্ষরা বেশ কয়েকজনকে গ্রামছাড়া করেছে, তাদেরকে বাড়ী ফিরতে বাধা দেয়া হচ্ছে বলেও অভিযোগ করেন তিনি। অন্যদিকে ঐদিন দুপুরে মনোহরপুর ইউনিয়নের নওপাড়া গ্রামে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে ১ নম্বর ওয়ার্ডের বর্তমান ইউপি সদস্য রতন ও আসন্ন ইউপি নির্বাচনে সদস্য প্রার্থী মোক্তার হোসেনের কর্মী-সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। তারা উভয়েই আওয়ামীলীগের কর্মী বলে জানা গেছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, সোমবার দুপুরে নওপাড়া গ্রামের রতন মেম্বর ও মোক্তার হোসেনের কর্মী-সমর্থকরা দেশীয় তৈরী ঢাল, ফালা, রামদা, বল¬ভ নিয়ে সংঘের্ষ জড়িয়ে পড়ে। এসময় পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনতে পুলিশ ২১ রাউন্ড শর্টগানের গুলি বর্ষণ ও ৬ রাউন্ড টিআরসেল নিক্ষেপ করে। পুলিশের গুলিতে আহত হয়েছে নওয়াব আলী, স্বপ্না খাতুন ও আবেদ আলী। এছাড়াও সংঘর্ষে মহিলাসহ অন্তত: ৩০ জন আহত হয়েছে। আহতদের মধ্যে মোক্তার, সাইফুল, আরব আলী, মইনুল, আব্দুল ওহাব, হান্নান, শফিকুল, মাসুম, আমির, জাকির ও রজব আলীসহ ১৩ জন শৈলকুপা হাসতাপালে ও গুলিবিদ্ধ ৩জনকে ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনায় পুলিশ ৬ জনকে আটক করেছে। শৈলকুপা থানার অফিসার ইনচার্জ মহিবুল ইসলাম জানান, উভয় স্থানে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। পরিস্থিতি বর্তমানে শান্ত রয়েছে।

ফেসবুক থেকে মতামত দিন

নববার্তা.কম এর সংবাদ পড়তে লাইক দিন নববার্তা এর ফেসবুক ফান পেজে

আরও অন্যান্য সংবাদ


Udoy Samaj

টুইটর




Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com