শনিবার, ২৩ Jun ২০১৮, ১০:২৭ পূর্বাহ্ন



নতুন ট্যাক্স আইনে শঙ্কায় আমিরাত প্রবাসী বাংলাদেশিরা

নতুন ট্যাক্স আইনে শঙ্কায় আমিরাত প্রবাসী বাংলাদেশিরা



আগামী পহেলা জানুয়ারি থেকে সংযুক্ত আরব আমিরাতে নতুন ট্যাক্স আর ভ্যাট আইন আসছে। এতে বাড়বে বিভিন্ন পণ্য ও সেবার দাম। এ নিয়ে শঙ্কায় আছেন সেখানে প্রবাসী বাংলাদেশিরা। জানা গেছে, নতুন ট্যাক্স আইনে সব প্রকার সিগারেট ও তামাকজাত পণ্য এবং এনার্জি ড্রিংক্সের ওপর শতভাগ কর বাড়ানো হচ্ছে। এছাড়া সফট ড্রিংক্স বা কার্বনেটেড ড্রিংক্সের ওপর কর বাড়ানো হচ্ছে ৫০ শতাংশ। এ বৃদ্ধি দেশের ফেডারেল ডিক্রি আইন নম্বর ৭ অনুযায়ী কার্যকর হতে যাচ্ছে।

ফেডারেল ট্যাক্স অথরিটির নির্দেশনা অনুযায়ী, যেসব ব্যবসায় তিন লাখ পঁচাত্তর হাজার দিরহাম বা তার বেশি আয় হবে সে সব প্রতিষ্ঠানকে ভ্যাট এর আওতায় আনা হচ্ছে। সূত্র জানায়, নতুন বছর থেকে খুচরা বাজারে বিভিন্ন পণ্যের ওপর ৫% ট্যাক্স আরোপ করা হচ্ছে। তবে প্রাথমিকভাবে নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্যকে যতদূর সম্ভব এ আওতার বাইরে রাখার চেষ্টা করা হবে বলে জানা গেছে। রাখলেও কর বাড়ানোর পরোক্ষ প্রভাব সাধারণ ভোক্তাদের ওপর থেকেই যাবে।

এ নিয়ে শঙ্কা তৈরি হয়েছে প্রবাসী বাংলাদেশিদের মধ্যে। আমিরাতে সবচেয়ে বেশি বাংলাদেশির কর্মসংস্থান রয়েছে। নতুন ট্যাক্স আইনের প্রভাব তাদের জীবন-জীবিকার ওপর পড়বে। আরব আমিরাতে প্রবাসী বাংলাদেশি আব্দুল হামিদ (৪৬) জানান, নতুন ট্যাক্স আইনে সবচেয়ে বিপদে পড়বে প্রবাসী বাংলাদেশিরা।

তিনি জানান, আড়াই হাজার দিরহাম বেতন পান। থাকা-খাওয়া বাবদ তার ১২শ’ দিরহাম খরচ হয়। বাকি টাকা দেশে পাঠিয়ে দেন। যা দিয়ে তার সংসার কোনোমতে চলে। তবে অপেক্ষাকৃত ভাল আছেন হামিদ। তার চেয়েও খারাপ আছেন নিম্ন আয়ের প্রবাসীরা; যাদের আয় পাঁচশ’ থেকে এক হাজার দিরহাম। চড়া অভিবাসন ব্যয় মেটাতে অনেকেই তিন থেকে সাড়ে চার লক্ষ টাকার ঋণ মাথায় নিয়ে অসহনীয় জীবন যাপন করছেন।

ফেসবুক থেকে মতামত দিন

Please Share This Post in Your Social Media








© 2018 Nobobarta । Privacy PolicyAbout usContact DMCA.com Protection Status
Design & Developed BY Nobobarta.com