মঙ্গলবার, ১১ ডিসেম্বর ২০১৮, ০৬:৫৮ পূর্বাহ্ন

English Version
রাবিতে ছাত্রীকে অপহরণ : অবশেষে ৩০ ঘণ্টা পর স্বামীসহ ছাত্রী উদ্ধার

রাবিতে ছাত্রীকে অপহরণ : অবশেষে ৩০ ঘণ্টা পর স্বামীসহ ছাত্রী উদ্ধার



  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

জি.এ.মিল্টন, রাবি প্রতিনিধি: রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস থেকে বাংলা বিভাগের চতুর্থ বর্ষের এক ছাত্রীকে গতকাল সকালে অপহরণ করা হয়। অপহরণের ৩০ ঘণ্টা পর স্বামীসহ ওই ছাত্রীকে আজ বিকালে উদ্ধার করা হয়েছে। রাজশাহী মহানগর মুখপাত্র ও সিনিয়র সহকারী পুলিশ কমিশনার (এসি) এফতেখায়ের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

এফতেখায়ের বলেন, ঢাকা থেকে স্বামীসহ ছাত্রীকে উদ্ধার করা হয়েছে। তারা এখন পুলিশি হেফাজতে আছে। তাদেরকে রাজশাহীতে নিয়ে আসার প্রক্রিয়া চলছে। এদিকে শনিবার বেলা ১১টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগারের সামনে অপহৃত ছাত্রীকে উদ্ধারের দাবিতে মানববন্ধন করেছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা। মানববন্ধনে তারা প্রশাসনকে দুই ঘণ্টার আল্টিমেটাম দিয়েছেন। দাবি পূরণ না হলে আগামীকাল (রবিবার) সকল ক্লাস-পরীক্ষা বন্ধের ঘোষণা দিয়েছেন তারা।

মানববন্ধনে শিক্ষার্থীদের দাবিসমূহ হলো, দ্রুত ওই ছাত্রীকে ফেরত দেয়া, ক্যাম্পাসে সকল শিক্ষার্থীর নিরাপত্তা নিশ্চিত করা, ছাত্রী হলগুলোর সমানে পুলিশের চেকপোস্ট বসানো, সব হলের গেটে এবং ক্যাম্পাসের সিসিটিভি ক্যামেরা স্থাপন করা, ছাত্রী হলের সান্ধ্য আইন বাতিল করা, সব হলে অভিভাবক প্রবেশের অনুমতি দেয়া এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভাগগুলোকে বিভিন্ন ক্ষেত্রে শিক্ষার্থীদের সুবিধা-অসুবিধার বিষয়টি বিবেচনা করা।

এর আগে সকাল ১০টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের তাপসী রাবেয়া হল থেকে ছাত্রীরা বের হতে চাইলে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের বাঁধার মুখে পড়েন বলে অভিযোগ পাওয়া যায়। এসময় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য অধ্যাপক আনন্দ কুমার সাহা সেখানে আসেন। তিনি ছাত্রীদের বলেন, ওই ছাত্রীর অবস্থান জানা গেছে। খুব তাড়াতাড়ি তাকে ফিরিয়ে আনা সম্ভব হবে। আমরা বিষয়টি সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়ে দেখছি।

পরে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক লুৎফর রহমান তাপসী রাবেয়া হলে প্রবেশ করেন। অপহৃত ওই ছাত্রীকে দ্রুত ফেরাত আনার আশ্বাস দিয়ে শিক্ষার্থীদের আন্দোলন থেকে বিরত থাকতে পরামর্শ দেন। এক পর্যায়ে বেলা পৌনে ১১টার দিকে ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ফয়সাল আহমেদ রুনুরু নেতৃত্বে ৫০-৬০ জন নেতাকর্মী ওই হলের সামনে আসেন। পরে ওই হলের গেটে ধাক্কাধাক্কি ও স্লোগান দিতে থাকলে ছাত্রীদের বের হতে দেন প্রক্টর।

লাইক দিন

Please Share This Post in Your Social Media




Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

© 2018 Nobobarta । Privacy PolicyAbout usContact DMCA.com Protection Status
Design & Developed BY Nobobarta.com