,

রাবির শিক্ষার্থী মো. রহমতুল্লাহ ২ দিন ধরে নিখোঁজ

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের মো. রহমতুল্লাহ নামের এক শিক্ষার্থী গত শুক্রবার রাত থেকে নিখোঁজ রয়েছেন। তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্রপ সায়েন্স অ্যান্ড টেকনোলজি বিভাগের তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী। রহমতুল্লা নীলফামারীর কিশোরগঞ্জ উপজেলার মাগুরা গ্রামের মোসলেম উদ্দিনের ছেলে। তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের মাদার বখ্শ হলের ১০৭ নম্বর কক্ষের আবাসিক শিক্ষার্থী। এ ঘটনায় শনিবার রাতে বিভাগের শিক্ষক অধ্যাপক নুরুল আলম নগরের মতিহার থানায় সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেছেন।

হল সূত্রে জানা গেছে, শুক্রবার সন্ধ্যায় রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে অসুস্থ এক স্বজনকে দেখতে যাওয়ার কথা বলে নিজ কক্ষ থেকে বের হয়ে যান রহমতুল্লাহ। রাতে না ফেরায় সহপাঠীরা তার মোবাইলে যোগাযোগের চেষ্টা করলে সেটি বন্ধ পান। পরে গতকাল শনিবার তাকে বিভিন্ন জায়গায় খোঁজাখুঁজি করেও পাওয়া যায়নি।

রহমতুল্লার বড়ভাই মাহমুদ হোসেন বলেন, “টাকার সমস্যা ছিল বলে শুক্রবার রাতে বাড়িতে বাবার কাছে থেকে বিকাশে এক হাজার টাকা নেন তিনি (রহমত)। ওই রাতে সে টিউশনি করিয়ে রুমে এসে সাইকেল রেখে বের হয়ে যান। তবে তার দুটি মোবাইলের মধ্যে একটি মোবাইল কক্ষে রেখে যায়। তারপর তার রুম মেটের সঙ্গে ফোনে কথা বলে অন্য এক ছেলেকে পাঠিয়ে ফোন নিয়ে যান। এরপর থেকে তার মোবাইলও বন্ধ, যে ছেলে হলে এসে মোবাইল নিয়ে গেছে তারও মোবাইল বন্ধ। তাদের সঙ্গে কেউ আর যোগাযোগ করেনি। রহমতুল্লাহ কোনো সংগঠনের সঙ্গে জড়িত ছিল না বলে দাবি করেন মাহমুদ।”

রহমতুল্লাহর সহপাঠী রাশেদ খান বলেন, “রোববার আমাদের চূড়ান্ত পরীক্ষা ছিল। কিন্তু তাকে খুঁজে না পাওয়ায় আমরা শিক্ষকদের বলে পরীক্ষা বাতিল করি। আমরা বুঝতে পারছি না সে কোথায় আছে, তার কী হয়েছে।” নগরের মতিহার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হুমায়ুন কবির বলেন, “নিখোঁজ হওয়া ছাত্রের বিভাগের একজন শিক্ষক রাতে জিডি করেছেন। আমরা প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিচ্ছি।”

ফেসবুক থেকে মতামত দিন

নববার্তা.কম এর সংবাদ পড়তে লাইক দিন নববার্তা এর ফেসবুক ফান পেজে

আরও অন্যান্য সংবাদ


টুইটর




Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com