ইফফাত জাহান ইশা
ইফফাত জাহান ইশা

ইশার ঘটনায় ঢাবির ছাত্রলীগ নেত্রীসহ বহিষ্কার ২৪

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সুফিয়া কামাল হল শাখার সভাপতি ইফফাত জাহান ইশার ওপর হামলার ঘটনায় ২৪ ছাত্রলীগ নেত্রীকে বহিষ্কার করেছে সংগঠনটির কেন্দ্রীয় সংসদ। আজ সোমবার সন্ধ্যায় সংগঠনটির এক জরুরি সভায় এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সংসদ সূত্রে জানা গেছে, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সুফিয়া কামাল হল শাখার সভাপতি ইফফাত জাহান ইশার ওপর হামলা ও গত ১০ এপ্রিল ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে সংঘর্ষের ঘটনায় তাদের বহিষ্কার করা হয়েছে।

বহিষ্কৃতরা হলেন- ছাত্রলীগের সাহিত্যবিষয়ক সম্পাদক খালেদা হোসেন মুন, সুফিয়া কামাল হল শাখার সহ-সভাপতি-আতিকা হক স্বর্ণা, মিরা, সাংগঠনিক সম্পাদক জান্নাতী আক্তার সুমি, সহ-সম্পাদক শ্রাবণী, যুগ্ম সম্পাদক শারমিন আক্তার, উপ তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক আশা, নাট্যকলা বিভাগের ছাত্রলীগ নেত্রী লিজ, মিথিলা, সুদীপ্তা মন্ডল, সংগীত বিভাগের প্রিয়াঙ্কা দে, নৃবিজ্ঞান বিভাগের শারমিন সুলতানা, উর্দু বিভাগের মিতু, ভূতত্ত্ব বিভাগের শীলা, জাকিয়া, মনিরা,রুমা, জুঁই, অনামিকা দাশ, প্রভা, তানজিলা ওতাজ।

ছাত্রলীগ সভাপতি সাইফুর রহমান সোহাগ ও সাধারণ সম্পাদক এসএম জাকির হোসাইন স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়েছে। গত ১০ এপ্রিল রাতে কোটা সংস্কারের আন্দোলনে যাওয়ায় বেশ কয়েকজন ছাত্রীকে নির্যাতনের অভিযোগে ইফফাত জাহান ইশাকে মারধর করে আন্দোলনকারীরা। ওই আন্দোলনকারীদের মধ্যে বেশ কয়েকজন ছাত্রলীগে নেত্রী ছিলেন বলেও অভিযোগ রয়েছে। আন্দোলনকারীদের অভিযোগ, কোটা সংস্কারের দাবিতে আন্দোলন করায় মোরশেদা আক্তারকে মারধর করেন ইশা। পরে ইশাকে ধরে জুতোর মালা পরিয়ে দেয় আন্দোলনকারীরা। এ ঘটনায় ইশা মানসিকভাবে ভেঙে পড়েন।

ঘটনার পরপরই ইশাকে সংগঠন থেকে বহিষ্কার করে ছাত্রলীগ। এরপরই ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষও ইশাকে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বহিষ্কার ঘোষণা করে। ছাত্রলীগ ওই রাতের ঘটনায় তদন্ত কমিটি গঠন করে। তদন্ত কমিটির তদন্তে ইশাকে নির্দোষ ঘোষণা করে ফের তার পদ ফিরিয়ে দেয়া হয়। ইশার ওপর হামলার ঘটনায় জড়িত ছাত্রলীগ নেতাদের বিরুদ্ধে এটাই কেন্দ্রের প্রথম কোনো পদক্ষেপ বলে ধারণা করা হচ্ছে।

ফেসবুক থেকে মতামত দিন

নববার্তা.কম এর সংবাদ পড়তে লাইক দিন নববার্তা এর ফেসবুক ফান পেজে

আরও অন্যান্য সংবাদ




টুইটর




Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com