,

নখ কামড়ানোর কিছু ভয়াবহ দিক

সাধারণত আমরা দৈনন্দিন জীবনের খারাপ অভ্যাসের তালিকায় নখ কামড়ানোকে ফেলে দিলেও এটি কেবল অভ্যাস হিসেবেই খারাপ নয়, খারাপ আমাদের শরীরের জন্যেও। এ অভ্যাসের অধিকরীরা অন্যান্যদের চাইতে অনেকটা বেশি স্বাস্থ্য ঝুঁকিতে থাকেন। যেটা কিনা অনেক সময় পৌঁছে যেতে পারে মারাত্মক পর্যায়েও। আসুন জেনে নিই নখ কামড়ানোর কিছু অত্যন্ত ভয়াবহ দিক।

১. ব্যাকটেরিয়া সংক্রমণ

মানুষের নখ অনেকসময় তার হাতের চাইতেও নোংরা হয়ে থাকে। গবেষনায় দেখা গিয়েছে যে, নখের ভেতরে জমে থাকে ই কোলি আর সেলমোনেলার মতন ব্যাকটেরিয়া। আর বারবার নখ কামড়ানোর ফলে এই ব্যাকটেরিয়াগুলো চলে আসে মানুষের মুখের ভেতরে আর ছড়িয়ে যায় ছাড়া শরীরে। তৈরি হয় নানা রকমের সমস্যা।

২. নখের সমস্যা

নখ কামড়ানো কেবল আপনার শরীরের জন্যেই নয়, স্বয়ং নখের জন্যেও তৈরি করতে পারে নানারকম সমস্যা। এটি আপনার নখের আকৃতিতে নষ্ট করে দিতে পারে। গবেষনায় পাওয়া যায় যে যেটাকে আমরা নখ হিসেবে দেখি সেটাকে লুনুলা বলে। তবে এই লুনুলার নীচে আরেকটি অংশ রয়েছে যেটি চামড়ায় ঢাকা থাকে। আর নখ কামড়ালে লুনুলার এই নীচের অংশটিতে সমস্যা দেখা যায়। এর থেকে জন্ম নেয় হঠাৎ করে এবড়ো-থেবড়ো বা ফুলে যাওয়া নখের আকৃতি।

৩. দাঁতের সমস্যা

সবসময় নখ কামড়ানোর ফলে আপনি সমস্যা সৃষ্টি করতে পারেন আপনার দাঁতের জন্যেও। প্রতিনিয়ত নখ কামড়ানো দাঁতের আকৃতি, মুখের আকৃতি এবং যেভাবে উপরের চোয়াল ও নীচের চোয়াল কাজ করে সেটাতে বাঁধা সৃষ্টি করে। এছাড়াও এক পরিসংখ্যানে দেখা গিয়েছে যে, নখ কামড়ে থাকেন এমন মানুষেরা পুরো জীবনে অন্যদের চাইতে ৪ হাজার ডলার বেশি দাঁতের ডাক্তারের পেছনে খরচ করেন।  

৪. নখের টিউমার

নখের টিউমর সাধারনত তৈরি হয় হিউম্যান প্যাপিলোমা ভাইরাস বা এইচপিভির মাধ্যমে। আর এই ভাইরাস সাধারনত বেশি দেখা যায় তাদের ভেতরে যারা প্রতিনিয়ত নখ কামড়ে চলেন। কিছু কিছু ক্ষেত্রে এই টিউমার মানুষকে নিয়ে যায় ক্যান্সারের দিকেও। শুধু তাই নয়, বারবার নখ কামড়ালে এই ভাইরাস ছড়িয়ে পড়তে পারে আপনার মুখসহ শরীরের অন্যান্য অংশেও।

৫. মানসিক ব্যাধি

২০১২ সালে আমেরিকান সাই্রিয়াট্রিক অ্যাসোসিয়েশন জানায় যে নখ কামড়ানো সাধারন কোন অভ্যাস নয়। অনেক ক্ষেত্রে এটিকে মানসিক ব্যাধি হিসেবেও চিহ্নিত করা হয়। অবসেসিভ কমপালসিভ ডিজঅর্ডারের ভেতরে অন্যতম একটি হিসেবে চিহ্নিত করা হয় একে।

ফেসবুক থেকে মতামত দিন

নববার্তা.কম এর সংবাদ পড়তে লাইক দিন নববার্তা এর ফেসবুক ফান পেজে

আরও অন্যান্য সংবাদ


টুইটর




Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com