,

জোর প্রস্তুতি নিতে দলীয় এমপিদের প্রতি প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের জোর প্রস্তুতি নিতে দলীয় এমপিদের প্রতি নির্দেশ দিয়েছেন আওয়ামী লীগ সভানেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এমপিদের নিজ নিজ নির্বাচনী এলাকার নেতা-কর্মীদের সঙ্গে যোগাযোগ বৃদ্ধি ও জনসংযোগ শুরুর তাগাদা দেন তিনি। গত নির্বাচনে বিএনপি অংশ না নিলেও আগামী নির্বাচনে দলটি আসবে- এমন বার্তা দিয়ে তিনি তার নির্দেশনায় বলেছেন, একটি প্রতিযোগিতাপূর্ণ নির্বাচনের জন্য দলীয় এমপিদের প্রস্তুত হতে হবে। বুধবার রাতে জাতীয় সংসদের সরকারি দলের সভাকক্ষে আওয়ামী লীগের সংসদীয় দলের এক রুদ্ধদ্বার বৈঠকে সূচনা বক্তব্যে প্রধানমন্ত্রী এমন নির্দেশনা দেন। রাতে এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত বৈঠক চলছিল।

দায়িত্বশীল সূত্র জানায়, দলের বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, ‘সরকারের মেয়াদ প্রায় চার বছর চলে গেছে। এক বছর এক মাস পরে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। এজন্য এখন থেকেই সবাইকে নির্বাচনী প্রস্তুতি নিতে হবে। প্রত্যেকের নির্বাচনী এলাকায় যেসব উন্নয়নকাজ বাকি রয়েছে তা শেষ করতে হবে। এ ছাড়া আমরা যে উন্নয়নমূলক কাজ করেছি তা বার বার মানুষের কাছে তুলে ধরতে হবে। আগে কী ছিল, আর আওয়ামী লীগ সরকার এখন কী উন্নয়ন করেছে তা মানুষকে জানাতে হবে।’

প্রধানমন্ত্রী আরও বলেছেন, ‘আগামী নির্বাচন আমাদের জন্য কঠিন চ্যালেঞ্জপূর্ণ হবে। তবে দেশের মানুষ উন্নয়নের ধারাবাহিকতার জন্য আবারও নৌকায় ভোট দেবে এমনটা আশা করি। আওয়ামী লীগ মানে উন্নয়ন, আর বিএনপি মানেই দেশের অর্থ লুটপাট, সন্ত্রাস। মানুষ উন্নয়ন চায়, শান্তি চায়। কিন্তু তার পরও জনগণের কাছে যেতে হবে। নির্বাচন সামনে রেখে আমাদের বিরুদ্ধে নানামুখী অপপ্রচার হবে। এগুলোর বিষয়ে এমপিসহ আওয়ামী লীগের প্রতিটি নেতা-কর্মীকে সতর্কতার সঙ্গে জবাব দিতে হবে। অপপ্রচারের বিরুদ্ধে আমাদের উন্নয়নগুলো প্রচার করতে হবে। মানুষের কাছে যেতে হবে।’ বৈঠকে সংসদীয় দলের সাধারণ সম্পাদক নূর ই আলম চৌধুরী লিটনসহ প্রায় সব সদস্যই উপস্থিত ছিলেন।

সূত্র: বাংলাদেশ প্রতিদিন।

ফেসবুক থেকে মতামত দিন

নববার্তা.কম এর সংবাদ পড়তে লাইক দিন নববার্তা এর ফেসবুক ফান পেজে

আরও অন্যান্য সংবাদ


Udoy Samaj

টুইটর




Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com