আজ মঙ্গলবার, ২৬ মার্চ ২০১৯, ০২:৩৫ অপরাহ্ন

মাদক সম্রাট তো সংসদেই আছে, তাদের ফাঁসি দেন : এরশাদ

মাদক সম্রাট তো সংসদেই আছে, তাদের ফাঁসি দেন : এরশাদ

Ershad-Nobobarta

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •  

মাদক বিরোধী অভিযানের নামে তথাকথিত বন্দুকযুদ্ধে কাদের হত্যা করা হচ্ছে তাদের প্রকৃত পরিচয় দেশের মানুষ জানতে চায় বলে মন্তব্য করে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ বলেছেন, ‘এভাবে বিনা বিচারে মানুষ হত্যা করতে পারেন না। প্রত্যেক নাগরিকেরই সাংবিধানিকভাবে বিচার পাওয়ার অধিকার আছে। কোথাও এর নজির নেই। কোনো দেশ এটা মেনে নেবে না।’

তিনি আরও বলেন, ‘মাদক নির্মূলের নামে যাদের হত্যা করা হচ্ছে তারা রাজনীতির সঙ্গে জড়িত কি না সেটাও আমরা জানি না। অথচ মাদক সম্রাট সংসদে আমাদের পাশেই বসে। তাদেরকে বিচারের আওতায় আনুন, ফাঁসিতে ঝুলান।’ বুধবার (২৩ মে) ঢাকার কাকরাইলের ডিপ্লোমা ইঞ্জিনির্য়াস ইনিস্টিউট মিলনায়তনে জাতীয় পার্টির কেন্দ্রীয় কমিটির উদ্যাগে আয়োজিত আলোচনা সভা ও ইফতার মাহফিলে সভাপতির বক্তব্যে এরশাদ এসব কথা বলেন।

বিচারবহির্ভূত হত্যাকাণ্ডের কারণে সরকার আজ প্রশ্নবিদ্ধ উল্লেখ করে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান বলেন, ‘টকশোর আলোচনায় প্রতিদিন বলা হচ্ছে তাছাড়া দেশের মানুষও প্রশ্ন করতে যাদের হত্যা করা হচ্ছে তারা আসলেই মাদকব্যবসার সঙ্গে জড়িত কি না।’ নাগরিকেরই সাংবিধানিকভাবে বিচার পাওয়ার অধিকার আছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘প্রতিদিন এভাবে বিনা বিচারে মানুষ হত্যা করতে পারেন না। প্রত্যেক নাগরিকেরই সাংবিধানিকভাবে বিচার পাওয়ার অধিকার আছে। মাদক নির্মূলে আগামী সংসদ অধিবেশনই সর্ব্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদণ্ড রেখে আইন পাশ করুন। যেখানে দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালের মাধ্যমে ফাঁসি সাজা দেওয়া হবে।’

ঢাকা শহর মানুষের বসবাসযোগ্য নয় উল্লেখ করে সাবেক এই রাষ্ট্রপতি বলেন, ‘যানজটের কারণে প্রতিদিন ৫১ লক্ষ ঘণ্টা অপব্যয় হচ্ছে, ৩২ হাজার কোটি টাকা ক্ষতির সম্মুখীন হচ্ছে দেশ। এ থেকে পরিত্রান পেতে হলে বিকেন্দ্রীকরণে করতে হবে। প্রাদেশিক শাসনব্যবস্থা কায়েম করতে হবে। জাতীয় পার্টি ক্ষমতায় এলে এগুলো বাস্তবায়ন করে ঢাকাকে যানজট মুক্ত করা হবে।’

এ সময় অন্যান্যদের মধ্যে আরও উপস্থিত ছিলেন বিরোধীদলের নেতা ও দলের সিনিয়র কো-চেয়ারম্যান রওশন এরশাদ, কো-চেয়ারম্যান জিএম কাদের, মহাসচিব এবিএম রুহুল আমিন হাওলাদার, প্রেসিডিয়াম সদস্য জিয়াউদ্দিন আহমেদ বাবলু, পানি সম্পদমন্ত্রী ব্যারিস্টার আনিসুল ইসলাম মাহমুদ, সৈয়দ আবু হোসেন বাবলা, হাজী সাইফুদ্দিন আহমেদ মিলন, জহিরুল আলম রুবেল, সংসদ সদস্য নরুল ইসলাম ওমর প্রমুখ।

লাইক দিন এবং শেয়ার করুন




Leave a Reply

জনসম্মুখে পুরুষ নির্যাতন, ভিডিও ভাইরাল

Nobobarta on Twitter

© 2018 Nobobarta । Privacy PolicyAbout usContact DMCA.com Protection Status
Design & Developed BY Nobobarta.com