বৃহস্পতিবার, ১৯ Jul ২০১৮, ০২:১০ অপরাহ্ন

English Version


বিশ্বস্বীকৃত স্বৈরাচারী আওয়ামীলীগ : ড. খন্দকার মোশাররফ

বিশ্বস্বীকৃত স্বৈরাচারী আওয়ামীলীগ : ড. খন্দকার মোশাররফ



বিএনপির জাতীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য ও সাবেক মন্ত্রী ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেছেন- আজকের আওয়ামীলীগ ক্ষমতায় থাকাকালে বাংলাদেশ প্রথম বিশ্বের দুর্নীতিগ্রস্থ দেশসমুহের তালিকায় অন্তর্ভুক্ত হয়েছিল। বিএনপি ক্ষমতায় এসে তাদের সেই কলংক থেকে দেশকে রক্ষা করেছিল। আর এখন আওয়ামীলীগ বিশ্ব স্বীকৃত স্বৈরাচারী সরকারের তালিকায় স্থান করে নিয়েছে। যা জাতি হিসেবে আমাদের জন্য লজ্জাজনক। মহান স্বাধীনতার ঘোষক শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান স্বাধীনতার ঘোষনা দিয়ে মহান মুক্তিযুদ্ধে ঝাপিঁয়ে পড়ে দেশ স্বাধীন করেছেন। তখন আওয়ামীলীগ ছিল নিরাপদ আশ্রয়ে।

আওয়ামীলীগ বাকশাল করেছিল শহীদ জিয়া গণতন্ত্র পুনপ্রতিষ্ঠা করেছেন। আওয়ামীলীগ আবারো বাকশালের দিকে হাটছে আর গণতন্ত্রের মা দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার নেতৃত্বে গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার আন্দোলন চলছে। দেশনেত্রী থেকে বিশ্বনেত্রী হওয়া তিন বারের সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে জেলে রেখে মাইনাস করে দেশে কোন নির্বাচন হবেনা। হতে দেয়া হবেনা।

তিনি মঙ্গলবার বিএনপি চেয়ারপার্সন দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তির দাবীতে বিএনপির সিলেট বিভাগীয় সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপরোক্ত কথা বলেন। সিলেট মহানগর বিএনপির সভাপতি নাসিম হোসাইনের সভাপতিত্বে, মহানগর সাধারণ সম্পাদক বদরুজ্জামান সেলিম ও জেলা সাধারণ সম্পাদক আলী আহমদের যৌথ পরিচালনায় নগরীর ঐতিহাসিক রেজিষ্ঠারী মাঠে অনুষ্ঠিত বিভাগীয় সমাবেশে জনতার ঢল নামে। সিলেট জেলা ও মহানগর, সুনামগঞ্জ, মৌলভীবাজার ও হবিগঞ্জ জেলা থেকে হাজার হাজার নেতাকর্মী সমাবেশে যোগ দেন। বেলা ২টায় শুরু হওয়া সমাবেশ ক্রমেই মহাসমুদ্রে পরিনত হয়। রেজিষ্ঠারী মাঠ কানায় কানায় পরিপূর্ণ হয়ে গোটা শহর যেন সমাবেশের নগরীতে পরিনত হয়।
সাবেক এই মন্ত্রী আরো বলেন- সিলেটের মাটি প্রয়াত সফল অর্থমন্ত্রী এম. সাইফুর রহমানের স্মৃতি বিজড়িত। এই মাটিতে জন্ম নিয়েছেন আমার মায়ার প্রিয় নেতা সন্তানতুল্য এম ইলিয়াস আলী। আজ ইলিয়াস আলী সরকারের গুম নামক কারাগারে আটক রয়েছে। এছাড়াও সিলেটের কয়েকজন ছাত্রনেতা সহ শতশত নেতাকর্মীদের গুম করেছে এই সরকার। এম সাইফুর রহমান ও এম ইলিয়াস আলীর সিলেটবাসীর লোকজন বিএনপিকে ভালবাসে, সিলেট বিএনপির ঘাঁটি। আজ দেশবাসী তার প্রমাণ পেয়েছে। সিলেট থেকেই অবৈধ সরকার পতনের ডাক দিতে হবে। দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া কারাগারে যাওয়ার আগে সর্বশেষ সফর সিলেটেই করেছিলেন। তাই জাতীয় রাজনীতিতে সিলেটের ভুমিকা গুরুত্বপূর্ণ।

সমাবেশে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন- বিএনপির জাতীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য সাবেক মন্ত্রী মির্জা আব্বাস, জাতীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য ও সাবেক মন্ত্রী বাবু গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, স্থায়ী কমিটির সদস্য সাবেক মন্ত্রী ড. আব্দুল মঈন খান, স্থায়ী কমিটির সদস্য ও সাবেক মন্ত্রী আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী, ভাইস চেয়ারম্যান বরকত উল্লাহ বুলু, ভাইস চেয়ারম্যান মোহাম্মদ শাহজাহান, ভাইস চেয়ারম্যান ইনাম আহমদ চৌধুরী, ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুল আউয়াল মিন্টু, বিএনপি চেয়ারপার্সনের উপদেষ্ঠা সাবেক হুইপ জয়নাল আবেদীন ফারুক, উপদেষ্ঠা সাবেক চীফ হুইপ ফজলুল হক আসপিয়া, উপদেষ্ঠা আলহাজ্ব এম.এ হক, উপদেষ্ঠা ড. মো: ইনামুল হক চৌধুরী, উপদেষ্ঠা খন্দকার আব্দুল মুক্তাদির, কেন্দ্রীয় প্রচার সম্পাদক শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এনী, কেন্দ্রীয় ও সিলেট বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক ডা: সাখাওয়াত হাসান জীবন, স্বেচ্ছাসেবক বিষয়ক সম্পাদক শরাফত আলী সপু, সমবায় বিষয়ক সম্পাদক হবিগঞ্জ পৌর মেয়র জিকে গৌছ, কেন্দ্রীয় সিলেট বিভাগীয় সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক সাবেক এমপি দিলদার হোসেন সেলিম, কেন্দ্রীয় সিলেট বিভাগীয় সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক সাবেক এমপি কলিম উদ্দিন আহমদ মিলন, কেন্দ্রীয় সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক শহীদুল ইসলাম মামুন, বিএনপির কেন্দ্রীয় সহ-ক্ষুদ্র ঋণ বিষয়ক সম্পাদক মুক্তিযোদ্ধা আব্দুর রাজ্জাক, কেন্দ্রীয় সদস্য ও সাবেক এমপি শাম্মী আক্তার, কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য ও সিলেট জেলা সভাপতি আবুল কাহের চৌধুরী শামীম, কেন্দ্রীয় সদস্য সিলেট সিটি মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী, মৌলভীবাজার জেলা সভাপতি সাবেক এমপি এম. নাসের রহমান, সাবেক এমপি আলহাজ্ব শফী আহমদ চৌধুরী, কেন্দ্রীয় সদস্য ডা: শাহরিয়ার হোসেন চৌধুরী, কেন্দ্রীয় সদস্য সাবেক এমপি নাসির উদ্দিন চৌধুরী, কেন্দ্রীয় সদস্য মিজানুর রহমান চৌধুরী মিজান, কেন্দ্রীয় সদস্য চিত্রনায়ক হেলাল খান।

মহানগর ওলামা দলের সাধারণ সম্পাদক মাওলানা মাসুদ আহমদের পবিত্র কোরআন তেলাওয়াতের মধ্য দিয়ে সুচীত সমাবেশে বক্তব্য রাখেন- জেলা বিএনপির সাবেক আহŸায়ক এডভোকেট নুরুল হক, বিএনপির কেন্দ্রীয় সদস্য এডভোকেট হাদিয়া চৌধুরী মুন্নি, জেলা বিএনপির সিনিয়র সহ-সভাপতি সাবেক এমপি আব্দুল কাহির চৌধুরী, মহানগর সিনিয়র সহ-সভাপতি আব্দুল কাইয়ুম জালালী পংকী, জেলা সহ-সভাপতি এডভোকেট আব্দুল গাফফার, সুনামগঞ্জ জেলা সাধারণ সম্পাদক নুরুল ইসলাম নুরুল, মৌলভীবাজার জেলা সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমান মিজান, কেন্দ্রীয় যুবদলের সিনিয়র সহ-সভাপতি মোরতাজুল ইসলাম বাদরু, ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক ইসহাক সরকার, স্বেচ্ছাসেবক দলের কেন্দ্রীয় যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম ফিরোজ, সিলেট মহানগর বিএনপির সহ-সভাপতি এডভোকেট হাবিবুর রহমান হাবিব, জেলা সহ-সভাপতি আব্দুল মান্নান, শাহজামাল নুরুল হুদা, মহানগর সহ-সভাপতি হুমায়ুন কবির শাহীন, সিসিক প্যানেল মেয়র রেজাউল হাসান কয়েস লোদী, মহানগর সিনিয়র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আজমল বখত চৌধুরী সাদেক, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট শামীম সিদ্দিকী, সৈয়দ মঈনুদ্দিন সোহেল, কাউন্সিলার দিনার খান হাসু, হুমায়ুন আহমদ মাসুক, জেলা সাংগঠনিক সম্পাদক এমরান আহমদ চৌধুরী, মহানগর সাংগঠনিক সম্পাদক মিফতাহ সিদ্দিকী, জেলা সাংগঠনিক সম্পাদক এডভোকেট হাসান আহমদ পাটোয়ারী রিপন, মহানগর সাংগঠনিক সম্পাদক কাউন্সিলার সৈয়দ তৌফিকুল হাদী, জেলা সাংগঠনিক আব্দুল আহাদ খান জামাল, মহানগর সাংগঠনিক মাহবুব চৌধুরী, জেলা সাংগঠনিক আবুল কাশেম, শামীম আহমদ, জাতীয়তাবাদী আইনজীবি ফোরাম সিলেটের সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট আতিকুর রহমান সাবু, মহানগর মুক্তিযোদ্ধা দলের আহŸায়ক সালেহ আহমদ খসরু, স্বেচ্ছাসেবক দলের মহানগর আহŸায়ক ফরহাদ চৌধুরী শামীম, জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সিনিয়র যুগ্ম আহŸায়ক নাজিম উদ্দিন লস্কর, যুবদল নেতা নজিবুর রহমান নজিব, জেলা যুবদলের সাধারণ সম্পাদক মামুনুর রশীদ মামুন, মহানগর ছাত্রদলের সাবেক সভাপতি নুরুল আলম সিদ্দিকী খালেদ, জেলা ছাত্রদলের সভাপতি সাঈদ আহমদ, জেলা মহিলা দলের সভানেত্রী কাউন্সিলার সালেহা কবির শেপী, জেলা জাসাস সভাপতি জসিম উদ্দিন, মহানগর জাসাস সাধারণ সম্পাদক তাজ উদ্দিন মাসুম, মহানগর মহিলা দলের ভারপ্রাপ্ত সভানেত্রী মিনারা বেগম, জেলা শ্রমিক দলের সাধারণ সম্পাদক সুরমান আলী, মহানগর সাধারণ সম্পাদক ইউনুছ মিয়া প্রমুখ।

ফেসবুক থেকে মতামত দিন

Please Share This Post in Your Social Media




ফুটবল স্কোর



© 2018 Nobobarta । Privacy PolicyAbout usContact DMCA.com Protection Status
Design & Developed BY Nobobarta.com