রবিবার, ২২ Jul ২০১৮, ০৫:২৫ পূর্বাহ্ন

English Version


সেনাবাহিনী প্রয়োজনে জনগণের পাশে থাকবে : প্রধানমন্ত্রী

সেনাবাহিনী প্রয়োজনে জনগণের পাশে থাকবে : প্রধানমন্ত্রী

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা



রয়োজনে সেনাবাহিনী জনগণের পাশে থাকবে বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সভানেত্রী এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। রোববার সকালে ঢাকা সেনানিবাসে বিভিন্ন প্রকল্পের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন। এ সময় তিনি ২৭ টি প্রকল্পের উদ্বোধন করেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, সেনাবাহিনীর সঙ্গে আমার পারিবারিক সম্পর্ক রয়েছে। আমার ২ ভাই সেনাবাহিনীতে চাকরি করতেন। আমার ১০ বছরের ছোট ভাই, বড় হয়ে সে কী করতে চায়-এ প্রশ্নের জবাবে বলতো, সেনাবাহিনীতে চাকরি করবে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, সেনাবাহিনীর জন্য অনেক পদক্ষেপ নিয়েছি। রসদ বাড়ানোর পাশাপাশি ভাতা বাড়িয়েছি। সেনাবাহিনীর জন্য আবাসন প্রকল্প বাস্তবায়ন করেছি। প্রথমবারের মতো আমরা সেনাবাহিনী প্যারা কমান্ডো ইউনিট চালু করেছি। ‘৯৬ সালে মেয়েদের সেনা ও বিমানবাহিনীতে নিয়োগের ব্যবস্থা করি। নারী পাইলট সংযোজন করে নতুন যুগের সূচনা করি। সেনাবাহিনীর প্রশিক্ষণের জন্য কেন্দ্র করে দিয়েছি।

তিনি বলেন, সেনা সদস্যদের জন্য ভাতের ব্যবস্থা করে দিয়েছি। ‘৯৬ সালে সরকার গঠনের পর সেনাবাহিনীর কাছে তাদের দাবি-দাওয়া সম্পর্কে জানতে চেয়েছিলাম। তারা বলেছিলেন, আমাদের দুপুরে রুটি দেয়া হয়, আমরা ভাত খেতে চাই। ওই সময় দেশে খাদ্য ঘাটতি ছিল। আমি কথা দিয়েছিলাম তাদের জন্য ভাতের ব্যবস্থা না করা পর্যন্ত আমি ভাত খাবো না। আমি ভাত খাইনি। তাদের জন্য ভাতের ব্যবস্থা করার পর আমি তাদের সঙ্গে বসে দুপুরের ভাত খেয়েছি।

প্রধানমন্ত্রী আর বলেন, সেনাবাহিনীর জন্য দুই লাখ টাকার দুস্থ ভাতা ৬ লাখ টাকা ব্যবস্থা করে দিয়েছি। এলপিআর-এর মেয়াদ ৬ মাসের পরিবর্তে এক বছর করা হয়েছে। সেনাবাহিনীর জেসিও পদকে দ্বিতীয় থেকে প্রথম শ্রেণির করা হয়েছে। সার্জেন্টকে তৃতীয় থেকে দ্বিতীয় শ্রেণিতে উন্নীত করেছি।

আন্তর্জাতিক অঙ্গনে সেনাবাহিনীর তাদের সম্মান ধরে রাখার আহ্বান জানান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

ফেসবুক থেকে মতামত দিন

Please Share This Post in Your Social Media




ফুটবল স্কোর



© 2018 Nobobarta । Privacy PolicyAbout usContact DMCA.com Protection Status
Design & Developed BY Nobobarta.com