ইসির সঙ্গে পজিটিভ আলোচনা হয়েছে : সেতুমন্ত্রী

আমরা ১১ দফা প্রস্তাব দিয়েছি। প্রধান নির্বাচন কমিশনারসহ সবাই এর প্রশংসা করেছেন। আমাদের আলোচনা খুব পজিটিভ হয়েছে। বললেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। বুধবার দুপুরে আগারগাঁওয়ে নির্বাচন কমিশন ভবনে অনুষ্ঠিত সংলাপ শেষে সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন তিনি। ওবায়দুল কাদের বলেন, কমিশনের সদস্যরা বলেছেন যে আমাদের প্রস্তাব অত্যন্ত নিরপেক্ষ। তাদের কাছে এটি কোনো রাজনৈতিক দলের প্রস্তাব মনে হয়নি।

বিএনপি ও জিয়াউর রহমানের প্রশংসা প্রসঙ্গে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, আমরা কমিশনের কাছ থেকে ব্যাখ্যা পেয়েছি। তবে ব্যাখ্যার বিষয়ে কিছুই বলতে চাই না। আর কোনও ব্যাখ্যা দিতে হলে সেটা ইসি দেবে। সংলাপে দেয়া দলের ১১ দফা প্রস্তাবের মধ্যে রয়েছে সংবিধান অনুযায়ী বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে নির্বাচনকালীন সরকারের প্রধান এবং ইলেকট্রনিক ভোটিং পদ্ধতি চালুসহ বেশ কিছু সুনির্দিষ্ট প্রস্তাব উল্লেখযোগ্য। এছাড়াও নির্বাচনে সেনা মোতায়েন না করা, আরপিওতে বড় ধরনের কোনো পরিবর্তন না আনা, একান্ত জরুরি না হলে সীমানা পুনর্বিন্যাস না করা, প্রবাসীদের ভোটার তালিকায় অন্তর্ভুক্তিসহ তাদের ভোটাধিকার নিশ্চিত করা, ভোটার তালিকার ভুলগুলো দূর করার বিষয়সমূহ বৈঠকে আলোচনা হয়।

ওবায়দুল কাদেরের নেতৃত্বে সংলাপে অংশ নেয়া ২১ সদস্যের প্রতিনিধি দলের অন্য সদস্যরা হলেন, উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য আমির হোসেন আমু, তোফায়েল আহমেদ, এইচ টি ইমাম, রাশিদুল আলম, সাবেক রাষ্ট্রদূত এম জমির, ড. মসিউর রহমান, সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য বেগম মতিয়া চৌধুরী, শেখ ফজলুল করিম সেলিম, মোহাম্মদ নাসিম, আবদুর রাজ্জাক, লে. কর্নেল (অব.) ফারুক খান, রমেশ চন্দ্র সেন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ, দীপু মনি, জাহাঙ্গীর কবির নানক, আবদুর রহমান, কোষাধ্যক্ষ এইচ এন আশিকুর রহমান, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক হাছান মাহমুদ, দপ্তর সম্পাদক আবদুস সোবহান গোলাপ, কার্যনির্বাহী সদস্য রিয়াজুল কবির কাওছার।

ফেসবুক থেকে মতামত দিন

নববার্তা.কম এর সংবাদ পড়তে লাইক দিন নববার্তা এর ফেসবুক ফান পেজে

আরও অন্যান্য সংবাদ




টুইটর




Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com