মঙ্গলবার, ২২ মে ২০১৮, ০২:৩৪ পূর্বাহ্ন

সেহরী ও ইফতার সময় :
আজ ২২ মে রবিবার, রমজান- ৫, সেহরী : ৩-৪৩ মিনিট, ইফতার : ৬-৪১ মিনিট, ডাউনলোড করে নিতে পারেন পুরো ফিচার- সেহরী ও ইফতার-এর সময়সূচী


ইতিহাস গড়লেন ফেদেরার

ইতিহাস গড়লেন ফেদেরার

Roger Federer



১৭টি গ্র্যান্ড স্লাম জয়ের পর হঠাৎ যেন থমকে গিয়েছিলেন তিনি। আর সেই সুযোগেই নিন্দুকরা প্রশ্ন তুলেছিলেন, কেন এখনও আগামীদের জন্য কোর্ট ছেড়ে দিচ্ছেন না তিনি? কিন্তু কেন ছাড়বেন? ছাড়ার যে সময়ই হয়নি। ইতিহাস তৈরির যে অনেক কিছু বাকি ছিল। আর সেই দৃঢ়তার সঙ্গেই প্রতিবার কোর্টে নেমেছেন তিনি।

আজ তিনি আরও একবার সার্থক। ফের বুঝিয়ে দিলেন তিনিই টেনিস বিশ্বের অনুপ্রেরণা তিনিই। তিনি অনন্য, অপ্রতিরোধ্য। বিশ্বের একমাত্র পুরুষ টেনিস তারকা হিসেবে ২০টি গ্র্যান্ড স্লামের মালিক তিনিই। তিনি টেনিসের রাজা  রজার ফেদেরার। গতবারও অস্ট্রেলিয়ান ওপেনের কোর্টে চ্যাম্পিয়ন হয়েছিলেন। এবারও তার ব্যতিক্রম হল না। সুপার সানডেতে শুধুমাত্র ফেদেরারের ম্যাজিক দেখতেই রড লেভার এরিনায় হাজির হয়ে গিয়েছিলেন ৭৩ হাজারেরও বেশি দর্শক। এদিন পাঁচ সেটের হাড্ডাহাড্ডি ম্যাচ জিতে টেনিস আকাশের উজ্জ্বলতম নক্ষত্র হয়ে উঠলেন ফেড এক্সপ্রেস।

সুইস তারকার কাছে ২-৬, ৭-৬, ৩-৬, ৬-৩, ১-৬ সেটে হারলেন মারিন চিলিচ। এই নিয়ে ষষ্ঠবার অস্ট্রেলিয়ান ওপেনের শিরোপা পেলেন সুইস তারকা। আর সেই সঙ্গে গ্র্যান্ড স্লাম জয়ীদের তালিকায় চার নম্বরে উঠে এলেন তিনি। সবচেয়ে বেশি মেজর খেতাব জয়ের তালিকায় তাঁর সামনে রয়েছেন তিন মহিলা টেনিস তারকা। মার্গারেট কোর্ট (২৪), সেরেনা উইলিয়ামস (২৩) এবং স্টেফিগ্রাফের (২২) পর রয়েছেন ফেদেরার।

ট্রফি হাতে পাওয়ার পর চোখের জল আর ধরে রাখতে পারলেন না রাজা রজার। গোটা গ্যালারি তখন হাততালিতে ফেটে পড়ছে। ফেদেরার বলছেন, ‘আরও একটা গ্র্যান্ড স্লাম জয় যে কতটা স্পেশ্যাল, তা কথায় বলে বোঝানো যায় না। আর অস্ট্রেলিয়ান ওপেন আমার কাছে সবসময় স্পেশ্যাল। সবাইকে অসংখ্য ধন্যবাদ। ’তবে টেনিস কোর্ট ছাড়ার আগে আরও একটা কথা জানিয়ে গেলেন তিনি, যা নিঃসন্দেহে বর্তমান তরুণ টেনিস খেলোয়াড়দের রাতের ঘুম উড়িয়ে দিতে পারে। বললেন, এখনও অনেকটা পথ চলা বাকি।

ফেসবুক থেকে মতামত দিন

Please Share This Post in Your Social Media








© 2018 Nobobarta । Privacy PolicyAbout usContact DMCA.com Protection Status
Design & Developed BY Nobobarta.com