,

নিমন্ত্রণে চুলের সাজ

নাসরিন ইসলাম # বছরের এই সময়টা যেন অলিখিত নিমন্ত্রণের মৌসুম। একটু ঠান্ডা ঠান্ডা ভাব পড়তে শুরু করা মানেই জমকালো দাওয়াত কিংবা বিয়ের নিমন্ত্রণ। মেকআপ বা পোশাক তো ঠিক হলো, চুল সাজাতে গিয়ে বাধে বিপত্তি। কেমন স্টাইল চলছে, কোন ধরনের চুলে কেমন স্টাইল তা দেখে নিন এবার। পরামর্শ দিয়েছেন রূপবিশেষজ্ঞ আফরোজা পারভীন। তিনি বলেন, ‘খোলা চুলই মেয়েদের বেশি পছন্দ বলে মনে হয়। আর যেহেতু শীত প্রায় চলে এল তাই এখন কোঁকড়ানো স্টাইল দেখা যাবে।’

আজকাল পোশাকের সঙ্গে চুলের স্টাইলের কোনো বাঁধাধরা নিয়ম নেই। খোলা চুল তো আছেই, তাতেও রয়েছে নানা কায়দা। সোজাসাপটা খোলা চুলে বদলে দেখা যাচ্ছে নানা বৈচিত্র্য। এ ছাড়া নানা রকম বেণি, এলোমেলো স্টাইল, কার্ল, সোজা সবই এখন চলছে। তাই চুল বাঁধতে পারেন ইচ্ছেমতো। তবে নিজের সঙ্গে যা মানানসই সেই স্টাইলকেই প্রাধান্য দিন।

মাঝারি চুলের স্টাইল
মাঝারি চুলে ইচ্ছামতো স্টাইল করা যায়। বিশেষ দিনে অনেক সময় পারলারে গিয়ে চুল বাঁধা সম্ভব না। তাই আফরোজা পারভিন বলেন, ‘চাইলে আগের দিন রাতে চুল পেঁচিয়ে রাখা যেতে পারে। পরদিন সকালে চুল খুলে দেখবেন খুব সুন্দর একটা কোঁকড়া ভাব আসবে।’
ছোট চুলের স্টাইল
ছোট চুলের স্টাইলে তেমন বৈচিত্র্য নেই, এমন কথাই প্রচলিত। তবে এখন ছোট চুলের স্টাইলেও এসেছে অনেক বৈচিত্র্য। বিভিন্ন ধরনের স্টাইলিশ ব্যান্ড দিয়েও সাজে ভিন্নতা আনা যেতে পারে। কার্ল করলেও ভালো দেখাবে।
খোলা চুলে স্টাইল
চুল খোলা রাখলে একদম সোজাসাপটা ছেড়ে না রেখে ব্লো ড্রাই করে নিন। কিংবা রোলার স্টাইলার দিয়ে হালকা কুঁকড়ে নিন। পুরো চুল স্পাইরালও করতে পারেন। ওপরের দিকে সোজা রেখে নিচের দিকে কোঁকড়া করে রাখতে পারেন।
লম্বা চুলের স্টাইল
লম্বা চুলে বেণির শোভা দেখতে দারুণ লাগে। একসময় সালোয়ার-কামিজ বা শাড়ির সঙ্গেই করা হতো বেণি। ইদানীং স্কার্ট, টপ বা ড্রেসের সঙ্গেও দিব্যি বেণি করছেন অনেকে। তবে সাদামাটা বেণির দিন ফুরিয়েছে বলা যায়। নানা স্টাইলেই বেণি করা যায় যেমন: ফ্রেঞ্চ বেণি, মারমেইড বেণি ইত্যাদি। মাথার মাঝখান থেকে কিছু চুল নিয়ে টুইস্ট করে বেণি বা পনিটেইল করে নিতে পারেন। চাইলে খোঁপাও করতে পারেন।
জেনে নিন
উৎসবের আগে পারলারে গিয়ে চুলের ধরন বুঝে হেয়ার ট্রিটমেন্ট দিয়ে নিন। কিংবা বাড়িতেই করে নিন চুলের যত্ন।
তাৎক্ষণিকভাবে চুল মসৃণ দেখাতে আধা মগ পানিতে এক চা-চামচ মধু মিশিয়ে তা দিয়ে চুল ধুয়ে ফেলুন।
চুলে স্টাইল করার আগে হেয়ার ক্রিম লাগিয়ে নিন।
বিভিন্ন স্টাইল করতে গিয়ে চুলে অনেক ধকল পড়বে। তাই উৎসব শেষে চুলে হট ওয়েল ম্যাসাজ করুন।

ফেসবুক থেকে মতামত দিন

আরও অন্যান্য সংবাদ


Nobobarta on Twitter




Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com