অবসর নেওয়ার সময় হয়েছে : সোনিয়া

‘আমার এবার অবসর নেওয়ার সময় হয়েছে।’ এর বেশি আর মন্তব্য করেননি ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেসের নেত্রী সোনিয়া গান্ধী। এর চেয়ে বেশি আর বলতেও চাননি। আগামীকাল ভারতের প্রাচীনতম এই রাজনৈতিক দলের প্রধানের দায়িত্ব নিচ্ছেন সোনিয়া গান্ধীর ছেলে রাহুল গান্ধী। গত সোমবার দলটির সভাপতি নির্বাচিত হন তিনি। ছেলে দলের প্রধান হওয়ার আগে সোনিয়া গান্ধীই ছিলেন দলটির সভানেত্রী। পদ ছাড়ার একদিন আগে শুক্রবার এক মন্তব্যে জানিয়ে দিলেন, অবসর নিতে চান তিনি।

তবে কংগ্রেস নেতা বীরাপ্পা মইলি অবশ্য এরই মধ্যে জানিয়েছেন, সোনিয়া গান্ধী কংগ্রেসের সভানেত্রী না থাকলেও দলকে প্রয়োজনীয় গুরুত্বপূর্ণ পরামর্শ দিয়ে যাবেন তিনি। দলকে সংকটে পথ দেখাবেন তিনি। সোনিয়া গান্ধীর নেতৃত্বের প্রশংসা করে বীরাপ্পা মইলি বলেন, ‘২০০৪ সালে যেভাবে তিনি জোট গঠনের প্রক্রিয়া সামলেছিলেন এবং ২০০৯ সালে ইউপিএ (ইউনাইটেড পিপলস অ্যালায়েন্স) সরকার গঠনে তিনি যে ভূমিকা নিয়েছিলেন তা অবশ্যই প্রশংসাযোগ্য।

তবে সোনিয়া গান্ধী এদিন অবসর নেওয়ার কথা জানালেও তিনি দলীয় ব্যাপারে প্রয়োজনে হস্তক্ষেপ করবেন কি না সেই বিষয়ে কোনো মন্তব্য করতে চাননি। ১৯৯৮ সালে কংগ্রেসের বিপর্যস্ত সময় দলের হাল ধরেন সোনিয়া গান্ধী। তাঁরই নেতৃত্বে ২০০৪ সালে কংগ্রেস নেতৃত্বাধীন ইউপিএ জোট লোকসভা নির্বাচনে জয়ী হয়। তখনই সোনিয়া গান্ধীর ভারতের প্রধানমন্ত্রী হওয়ার সুযোগ আসে। কিন্তু বিজেপিসহ একাধিক দল অভিযোগ করে, তিনি বিদেশি। সোনিয়া গান্ধী নিজে প্রধানমন্ত্রী না হয়ে মনমোহন সিংহকে প্রধানমন্ত্রী পদে বসান। তবে দলের প্রধানের দায়িত্ব পালন করেন তিনি।

ফেসবুক থেকে মতামত দিন

নববার্তা.কম এর সংবাদ পড়তে লাইক দিন নববার্তা এর ফেসবুক ফান পেজে

আরও অন্যান্য সংবাদ




টুইটর




Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com