,

রায় সংবিধান পরিপন্থি: আইনমন্ত্রী

বিচারক অপসারণের ক্ষমতা সংসদের হাতে আনতে সংবিধানের ষোড়শ সংশোধনী ‘অবৈধ’ ঘোষণা করে দেয়া হাই কোর্টের রায়কে ‘সংবিধান পরিপন্থি’ বলেছেন আইনমন্ত্রী আনিসুল হক। বিকালে সংসদ অধিবেশনে এক অনির্ধারিত আলোচনায় এই প্রতিক্রিয়া জানান তিনি।  সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী আনিসুল হক বলেছেন, “সংসদের সিদ্ধান্তকে অবৈধ বলে দেয়া এই রায় আপিল বিভাগে টিকবে না। রাষ্ট্রপক্ষ এখন আপিলের প্রস্তুতি নিচ্ছে। আমরা আইনি পথেই যাব। আমরা গণতন্ত্রের বিরুদ্ধে কোনো ষড়যন্ত্র সহ্য করব না।”

উচ্চ আদালতের বিচারক অপসারণের ক্ষমতা সংসদের কাছে ফিরিয়ে নিতে ২০১৪ সালের ১৭ সেপ্টেম্বর সংবিধানের ষোড়শ সংশোধনী আনা হয়। ওই সংশোধন চ্যালেঞ্জ করে একটি রিট আবেদনের রায়ে বৃহস্পতিবার হাই কোর্টের তিন বিচারপতির একটি বেঞ্চ সংসদের ওই পদক্ষেপকে অবৈধ বলে রায় দেয়। আদালতের এই আদেশ নিয়ে সংসদ অধিবেশনের শুরুতেই পয়েণ্ট অব অর্ডারে দাঁড়িয়ে আলোচনার সূত্রপাত করেন জাতীয় পার্টির সংসদ সদস্য ফখরুল ইসলাম। তিনি আদালতের রায়ের বিষয়ে আইনমন্ত্রীর বিবৃতি দাবি করেন। 

দাবির মুখে আইনমন্ত্রী বলেন, “আমরা সংশোধনীটা পাস করেছিলাম বিচার বিভাগের স্বাধীনতা অক্ষুণ্ন রাখার জন্য, বিচারপতি-বিজ্ঞ বিচারকদের সন্মান অক্ষুণ্ন রাখার জন্য।আর্টিকেল ৯৬ এ সংশোধনীর আগে যেটা ছিল, তা হল মার্শাল ল ফরমান দ্বারা তৈরি। ১৯৭৮ এর সুপ্রিম জুডিশিয়াল কাউন্সিল। আমরা সেটা পরিবর্তন করতে গিয়েছিলাম।”

তিনি বলেন, “উনারা (হাই কোর্ট) সেটা আজকের রায়ে বলে দিলেন, এটা ‘ইলিগ্যাল’। এখনও আমি বলি এটা মোটেও ইলিগ্যাল নয়। উনারা যেটা বলছেন সেটা নট মেইনটেনেবল।”  সংবিধানের পঞ্চম সংশোধনীর মাধ্যমে বিচারকদের অপসারণের ক্ষমতা সুপ্রিম জুডিশিয়াল কাউন্সিলের কাছে ন্যস্ত হয় একটি সামরিক ফরমানের মাধ্যমে। আনিসুল হক বলেন, “আমরা আইনের শাসনে বিশ্বাস করি। এখনও বিশ্বাস করি বিচার বিভাগ স্বাধীন।আপিল করলে এই রায় গ্রহণযোগ্য হবে না। সেজন্য আমরা এই রায়ের বিরুদ্ধে আগামী রবি-সোমবারের মধ্যে আপিল করব।”

ফেসবুক থেকে মতামত দিন

নববার্তা.কম এর সংবাদ পড়তে লাইক দিন নববার্তা এর ফেসবুক ফান পেজে

আরও অন্যান্য সংবাদ


টুইটর




Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com