,

রাজধানীর উত্তরা এপিবিএন এর অভিযানে ২টি ভেজাল মিষ্টি ও দধি তৈরী প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা

রাজধানীর আজমপুর, দক্ষিণখান এলাকায় ২টি মিষ্টি ও দধি দোকানে অভিযান চালানো হয় এপিবিএন-৫ এর অপারেশনাল টীম, ঢাকা জেলা প্রশাসন ও বিএসটিআই এর যৌথ উদ্যোগে। অভিযানে অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে বিএসটিআই এর অনুমতি ছাড়া বনফুল নাম ব্যবহার করে “অরজিনাল বনফুল” ও “বনফুল মিষ্টি বেকারী” মিষ্টি, দধি ও বিস্কুট তৈরী করার অপরাধে ৪০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। আজ মঙ্গলবার দুপুর ২.৩০ হতে এ অভিযান শুরু হয়।    অভিযানের উপস্থিত ছিলেন এপিবিএন-৫ এর সিনিয়র এএসপি আমিরুল ইসলাম, এএসপি মোঃ সাইদুর রহমান, ঢাকা জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্র্রেট সিফাত-ই-জাহান ও বিএসটিআই এর কর্মকর্তাবৃন্দ ।

এপিবিএন-৫ এর অপারেশন অফিসার আমিরুল ইসলাম জানান “দীর্ঘ ১ মাস ধরে এপিবিএন-৫ এর অপারেশনাল টীমের নজরদারীতে রাখার পর আজ এ ভেজাল বিরোধী অভিযান চালানো হয়। অভিযানে দেখা যায়, রাজধানীর উত্তরা, আজমপুর, হালিম মার্কেটে “অরজিনাল বনফুল” প্রতিষ্ঠানটি বিএসটিআইয়ের অনুমতি ছাড়া অস্বাস্থ্যকর, নোংরা পরিবেশে মানব দেহের জন্য ক্ষতিকর রাসায়নিক ও কেমিক্যাল রং দিয়ে দধি, মিষ্টি ও বিস্কুট তৈরী ও বাজারজাত করে আসছে, যার দায়ে ৩০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। তিনি আরোও জানান, উত্তরার আজমপুরে “বনফুল মিষ্টি এন্ড বেকারী” বিএসটিআই সনদ না নিয়ে স্যাঁতসেঁতে পরিবেশে খাবারের অনুপযোগী দধি তৈরী, মেয়াদ উর্ত্তীণ দই এর মোড়ক বদল করে পুনরায় বাজারজাত করার অভিযোগে প্রতিষ্ঠানের মালিক’কে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। অভিযানে এই সব দোকানো খাবারের অনুপযোগী বিপুল পরিমান মিষ্টি ও দই ধ্বংস করা হয়।

অভিযানে বিএসটিআই কর্মকর্তা জানান “অবৈধ এই প্রতিষ্ঠান বিএসটিআই লাইন্সেস ব্যতিত প্রতিষ্ঠান পরিচালনা করায় বিএসটিআই অধ্যাদেশ-৩৭(১৯৮৫) এবং বিএসটিআই (এ্যামেন্ডমেন্ট) এ্যাক্ট-২০০৩ এর ২৪ ধারায় অপরাধে জরিমানা আদায় করা হয়।

(আমিরুল ইসলাম)
সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার (মিডিয়া অফিসার)
৫ আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়ন
উত্তরা, ঢাকা

ফেসবুক থেকে মতামত দিন

নববার্তা.কম এর সংবাদ পড়তে লাইক দিন নববার্তা এর ফেসবুক ফান পেজে

আরও অন্যান্য সংবাদ


টুইটর




Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com