মঙ্গলবার, ১৭ Jul ২০১৮, ০৬:১২ পূর্বাহ্ন

English Version
সংবাদ শিরোনাম :


মডেল সাবিরা হোসাইন আত্মহত্যা: প্রেমিক রওনক আটক

মডেল সাবিরা হোসাইন আত্মহত্যা: প্রেমিক রওনক আটক



বাবা-মা কখনো খায়িয়ে দেয়নি আমাকে, এমনটাই উল্লেক ছিল মডেল সাবিরার ফেসবুক কমেন্ট বক্সে।মৃত্যুর আগে সাবিরার ফেসবুক স্ট্যাটাস ও ভিডিও পোস্ট করেন, তাতে তার বান্ধবী মেহেরিন মৌ কমেন্ট করেন ‘ও আমার স্কুল ফ্রেন্ড ছিল। প্রায় আসতো আমার বাসায়। গত ৮ এপ্রিল আমার জন্মদিনেও আমার বাসায় এসেছিল। ও মোহাম্মদপুর মহিলা হোস্টেলে থাকতো । ওকে আমি নিজের হাতে  খায়িয়ে দিতাম। আমকে সাবিরা জরিয়ে ধরে বলে ছিল’ ‘আমার বাবা-মা কেউ কখনো মুখে তুলে খায়িয়ে দেয়নি। আমি তোর এই ঋণ কোন দিন শোধ করতে পারব না।

আত্মহত্যার আগে নির্ঝর সিনহা রওনক নামের এক যুবককে মৃত্যুর জন্য দায়ী করেছিলেন মডেল সাবিরা হোসাইন।ফেসবুকে পোস্টে মৃত্যুর জন্য নির্ঝর সিনহা রওনক-কে দায়ী করে লিখেছেন, ‘আমার মৃত্যুর জন্য সে (নির্ঝর) দায়ী। যদি আমি মারা যাই, তাহলে এর দায় তার।’ আর সেই কারণে পুলিশ সাবিরার প্রেমিক সিনহা রওনককে আটক করেছে।

 
রাজধানীর মিরপুরের রূপনগর এলাকা থেকে সিলিং ফ্যানের সঙ্গে ঝুলন্ত অবস্থায়  মডেল সাবিরা হোসাইনের (২১) লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। এর ঘণ্টা খানেক পর জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নিহত তরুণীর প্রেমিক নির্ঝর সিনহা রওনককে গ্রেপ্তার করা হয়। মিরপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি, তদন্ত) শাহীন ফকির বলেন, ‘সম্ভবত মেয়েটির সঙ্গে কয়েকটি ছেলের প্রেমের সম্পর্ক ছিল। আমরা জানতে পেরেছি, সোমবার রাতে নির্ঝরের বাসায় যান সাবিরা।

চিৎকার করার কারণে তাঁকে বাড়ি থেকে বের করে দেন নির্ঝরের ছোট ভাই। এ কারণে মেয়েটি আত্মহত্যা করতে পারেন।’ তিনি জানান, এ ঘটনায় বাদী হয়ে নিহত তরুণীর মা রূপনগর থানায় মামলা করেছেন। আত্মহত্যার আগে ফেসবুকে একটি সুইসাইড নোট ও ভিডিও বার্তা দিয়ে গেছেন এ মডেল।  

ধারণা করা হচ্ছে, নির্ঝর সিনহা রওনক নামে ওই যুবকের সঙ্গে প্রেমের জের ধরেই আত্মহননের পথ বেছে নেন সাবিরা। নির্ঝর সিনহা পেশায় একজন ফটোগ্রাফার। রিফ্লেকশন নামে তার একটি ফটোগ্রাফি প্রতিষ্ঠানও রয়েছে। তাদের দুজনের মধ্যে ‘ওপেন রিলেশনশিপ’ থাকলেও বিয়ের ব্যাপারে অসম্মতি ছিল নির্ঝরের পরিবারের। বিষয়টি মেনে নিতে না পেরে সাড়ে ৯ মিনিটের ভিডিও বার্তায় ঘোষণা দিয়ে আত্মহত্যা করেন সাবিরা।

ওই ভিডিওতে দেখা গেছে, ছুরি হাতে বারবার পেটে ও গলায় চাপ দেয়ার চেষ্টা করেন তিনি। কিন্তু কাজ না হওয়ায় ৯ মিনিটের শেষের দিকে তিনি বলেন, ‘আমি ব্যর্থ, আপাতত। ওকে নেক্সট অ্যাটেমপ্ট নেব।’ ভিডিও বার্তা যুক্ত করে ফেসবুক স্ট্যাটাসে সাবিরা লেখেন, ‘আমি তোমাকে দোষ দিচ্ছি না। এটা তোমার ছোট ভাইকে বলা। সে আমাকে যা ইচ্ছে বলেছে। আর বেস্ট পার্ট হল, সে আমাকে বাসা থেকে বের করে দিয়েছে। আর আমার প্রশ্ন হল, তোমার কি একটুও ফিল হয়নি?’ তিনি আরো লিখেছেন, ‘আমাকে ব্যবহার করবে, সেক্স করবে, আর আমি সরে যাবো। এটাতো হতে পারে না। বিয়ের কথা বললে তোমার পরিবার অসুস্থ হয়ে যায়। আর সেক্সের কথা বললে সব ঠিকঠাক।’

ভিডিওটি দেখুন:

 

ফেসবুক থেকে মতামত দিন

Please Share This Post in Your Social Media




ফুটবল স্কোর



© 2018 Nobobarta । Privacy PolicyAbout usContact DMCA.com Protection Status
Design & Developed BY Nobobarta.com