,

বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভ চুরিতে ৩টি হ্যাকার গ্রুপ জড়িত

বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভ চুরিতে ৩টি হ্যাকার গ্রুপ জড়িত বলে জানিয়েছে এ ঘটনা তদন্তে বাংলাদেশ নিযুক্ত সিলিকন ভ্যালির সাইবার নিরাপত্তা প্রতিষ্ঠান ফায়ারআইয়ের তদন্তকারীরা। এরমধ্যে পাকিস্তান ও উত্তর কোরিয়ার দুটি হ্যাকার গ্রুপ রয়েছে। তবে তৃতীয় গ্রুপ যারা মূল অপরাধী বলে সন্দেহ তাদের ব্যাপারে পর্যাপ্ত তথ্য পাওয়া যায়নি।

রিজার্ভ চুরির ঘটনা তদন্তে বাংলাদেশ ব্যাংক নিযুক্ত সিলিকন ভ্যালির সাইবার নিরাপত্তা প্রতিষ্ঠান ফায়ারআই জানিয়েছে ওই চুরিতে তিনটি হ্যাকিং গ্রুপ জড়িত ছিল। বাণিজ্য বিষয়ক সংবাদমাধ্যম ব্লুমবার্গ মঙ্গলবার এ খবর জানিয়েছে। ফায়ারআইয়ের দুজন তদন্তকারীর বরাত দিয়ে ওই খবরে বলা হয়েছে, ফরেনসিক তদন্তে ওই চুরির সঙ্গে জড়িত পাকিস্তানি ও উত্তর কোরীয় দুটি হ্যাকার গ্রুপের ডিজিটাল ফিঙ্গার প্রিন্ট শনাক্ত করতে পেরেছেন তারা।

তবে তৃতীয় গ্রুপ যারা ওই চুরির ঘটনার মূল অপরাধী বলে সন্দেহ করা হচ্ছে তাদের সম্পর্কে পর্যাপ্ত তথ্য মেলেনি। তাই তদন্তকারীরা বলতে পারছেন না তারা কোনো অপরাধমূলক নেটওয়ার্ক বা অন্যকোনো দেশের এজেন্ট কি-না। এর আগে মঙ্গলবার সুইজারল্যান্ডের বাসেলে আর্থিক লেনদেনের বার্তা আদানপ্রদানকারী আন্তর্জাতিক প্রতিষ্ঠান- সুইফট এবং ফেডারেল রিজার্ভ ব্যাংক অব নিউইয়র্কের কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠক করেন বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর ফজলে কবির।

পরে যৌথ বিবৃতিতে ওই অর্থ চুরির সঙ্গে যারাই জড়িত তাদের খুঁজে বের করে বিচারের আওতায় আনার ব্যাপারে সবাই একযোগে কাজ করবে বলে জানানো হয়। এদিকে, ওই চুরির ঘটনায় বাংলাদেশ ব্যাংকের অন্তত একজন কর্মকর্তা জড়িত ছিল বলে এফবিআইয়ের তদন্তে বেরিয়ে এসেছে বলে ওয়াল স্ট্রিট জার্নালের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে। আর নিজেদের টেকনিশিয়ানদের দায়িত্বে অবহেলার কারণেই বাংলাদেশ ব্যাংকের সার্ভারে হ্যাকাররা ঢুকতে পেরেছিল—এমন অভিযোগ প্রত্যাখ্যান করেছে সুইফট।

ফেসবুক থেকে মতামত দিন

নববার্তা.কম এর সংবাদ পড়তে লাইক দিন নববার্তা এর ফেসবুক ফান পেজে

আরও অন্যান্য সংবাদ


টুইটর




Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com