,

ভয়ঙ্কর স্কুল যাত্রা!

ছোট্ট শিশুরা পিঠে ব্যাগ ঝুলিয়ে আনন্দ করতে করতে স্কুলে যাবে, এটা স্বাভাবিক চিত্র। কিন্তু বিশ্বের এমন কিছু স্থান আছে যেসব এলাকার শিশুদের স্কুলে যাওয়ার জন্য রীতিমত প্রাণের ঝুঁকি নিতে হয়। চীনের সিচুয়ান প্রদেশের আটুলিয়ে গ্রামের শিশুদের স্কুলে যাতায়াত করতে হয় হাতের মুঠোয় প্রাণ নিয়ে।

গ্রামটি পাহাড়ের প্রায় তিন হাজার ফুট উপরে। সেখানে ৭২ থেকে ৭৫টি পরিবার বাস করে। ওই গ্রামের সবাইকে কাজ করতে যেতে হয় পাহাড়ের নিচে সমতলে। প্রতিদিনের কাজে যাতায়াত করতে তাদের ভয়ঙ্কর এক পথ পাড়ি দিতে হয়। তবে বড়দের তেমন অসুবিধা না হলেও বেকায়দায় পড়ে শিশুরা। কারণ তাদের স্কুলটিও পাহাড়ের নিচে।

দড়ি ও কাঠের তৈরি মই বেয়ে ৬ থেকে ১৫ বছরের শিশুরাও স্কুলে যাতায়াত করে। খাড়া পাহাড়ের গা বেয়ে এভাবে যাতায়াত করতে গিয়ে যে কোনো সময় ঘটে যেতে পারে দুর্ঘটনা। একবার নিচে পড়লে আর রক্ষা নেই। তবুও প্রাণের ঝুঁকি নিয়ে এভাবে স্কুলে যাতায়াত করে আটুলিয়ের শিশুরা।

তবে স্কুলে যাতায়াত বিপদসঙ্কুল বলে ওই গ্রামের লোকজন একটি বিকল্প ব্যবস্থা গ্রহণ করেছেন। শিশুরা একবার স্কুলে গেলে অন্তত দুই সপ্তাহ আর বাড়ি ফেরে না। সেখানেই থেকে যায়। পরে তাদের অভিভাবকরা শিশুদের বাড়ি নিয়ে যান। শিশুদের স্কুলে যাতায়াতের সেসব ছবি এখন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়ে গেছে।

এদিকে, ঘটনাটি এভাবে ছড়িয়ে পড়ায় নড়ে চড়ে বসেছে সিচুয়ান প্রদেশের কর্মকর্তারা। তারা জানান, খুব শিগগির এসব শিশুদের স্কুলে যাতায়াতের অন্য কিছুর ব্যবস্থা করা হবে।

ফেসবুক থেকে মতামত দিন

নববার্তা.কম এর সংবাদ পড়তে লাইক দিন নববার্তা এর ফেসবুক ফান পেজে

আরও অন্যান্য সংবাদ


Udoy Samaj

টুইটর




Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com