বৃহস্পতিবার, ২১ Jun ২০১৮, ১০:৫৬ পূর্বাহ্ন



ভালুকায় যৌতুক ব্যাধিতে স্ত্রীর চোখ উঠালো স্বামী

ভালুকায় যৌতুক ব্যাধিতে স্ত্রীর চোখ উঠালো স্বামী



সফিউল্লাহ আনসারী, ময়মনসিংহ #  ময়মনসিংহের ভালুকায় উপজেলার গাদুমিয়া গ্রামে রবিবার (২২নভেম্বর) রাতে যৌতুক ব্যাধিতে এক পাষন্ড স্বামী চামচ দিয়ে স্ত্রীর ডান চোখ উপড়িয়ে ফেলেছে। মূমূর্ষ অবস্থায় গৃহবধূকে প্রথমে ভালুকা উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্স ও পরে ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনায় মডেল থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। পুলিশ পাষন্ড স্বামীকে গ্রেফতার করে আদালতে প্রেরণ করেছেন।

থানা পুলিশ, নির্যাতীত পরিবার ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, উপজেলার গাদুমিয়া গ্রামের ইয়াকুব আলীর পুত্র বুলবুল আহম্মেদ (৩৫) এর সাথে চার বছর পূর্বে একই উপজেলার রান্দিয়া গ্রামের আব্দুর রাজ্জাক মাস্টারের মেয়ে জিন্নাত ফাতেমা রুনার (২৩) বিয়ে হয়। তাদের ঘরে রামিম আহমেদ নামে তিন বছরের একটি ছেলে সন্তান রয়েছে। বিয়ের পর থেকেই যৌতুকের টাকার জন্য স্বামীসহ পরিবারের লোকজন রুনার উপর বিভিন্ন ধরণের শারিরীক ও মানসিক নির্যাতন করে আসছিল। ঘটনার দিন রবিবার রাত সাড়ে ৯ টার সময় স্বামী বুলবুল স্ত্রী রুনাকে তার বাবার বাড়ি থেকে এক লাখ টাকা এনে দেয়ার জন্য চাপ সৃষ্টি করে।

 

এসময় স্বামী-স্ত্রীর মাঝে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে চামচ দিয়ে স্বামী বুলবুল স্ত্রীর ডান চোখে আঘাত করে। খোঁজ পেয়ে স্থানীয়রা রক্তাক্ত অবস্থায় রুনাকে প্রথমে ভালুকা উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্স ও পরে আশঙ্কাজনক অবস্থায় ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করে। এ ঘটনায় রুনার ভাই খলিলুর রহমান বাদী হয়ে ঘটনার রাতেই স্বামীসহ চার জনের নামে ভালুকা মডেল থানায় মামলা নং-৩৬ তারিখ: ২২/১১/২০১৫ইং দায়ের করেন। মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ভালুকা মডেল থানার উপ-পরিদর্শক (এস আই) আবুল কালাম আজাদ জানান, গৃহবধূর চোখ উৎপাটন ঘটনায় মামলা রুজুর পর রাতেই নির্যাতনের শিকার মহিলার স্বামী বুলবুল আহম্মেদকে তার বাড়ি থেকে গ্রেফতার করে সোমবার দুপুরে আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে এবং অপরাপর আসামীদের গ্রেফতারে অভিযান চলছে

ফেসবুক থেকে মতামত দিন

Please Share This Post in Your Social Media








© 2018 Nobobarta । Privacy PolicyAbout usContact DMCA.com Protection Status
Design & Developed BY Nobobarta.com