,

মোহনগঞ্জ ট্রেন ডাকাতি: গৌরিপুরে যাত্রীদের বিক্ষোভ

মেহেদী হাসান আবদুল্লাহ্ ময়মনসিংহ # মোহনগঞ্জ থেকে রোববার রাতে ছেড়ে আসা ২৬৩ আপ ট্রেনে ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে । এ ঘটনার পর গৌরীপুর রেলওয়ে জংশনে ট্রেন থামিয়ে ক্ষতিগ্রস্ত যাত্রীরা বিক্ষোভ করেছে। যাত্রীদের অভিযোগ, ঘটনার সঙ্গে রেলওয়ে কর্মকর্তা-পুলিশ জড়িত রয়েছে। সময় ডাকাতরা অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে যাত্রীদের কাছ থেকে স্বর্ণালংকার, নগদ টাকা ও মোবাইল ফোনসহ প্রায় ২ লাখ টাকার মালামাল লুট করে নিয়ে গেছে।ক্ষতিগ্রস্ত ও প্রত্যক্ষদর্শী সুত্রে যানা যায়, ট্রেনটি শ্যামগঞ্জ রেলওয়ে স্টেশনে প্রায়  ২৫-৩০ মিনিট যাত্রা বিরতি দেয়। এসময় কর্তব্যরত পুলিশ ময়মনসিংহগামী যাত্রীদের প্রথম কোচে ও গৌরীপুরের যাত্রীদের দ্বিতীয় কোচে উঠার নির্দেশ দিয়ে তিনি অন্য কোচে উঠেন। ট্রেন ছাড়ার অল্প পরেই হঠাত করে লাইট বন্ধ বন্ধ হয়ে যায়। 

 

তার পরপরই ডাকাতি শুরু হয়। প্রথম কোচে যাত্রীবেশে উঠা ডাকাতদলের ৭জন যাত্রীদের অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে প্রায় ২ লাখ টাকার মালামাল লুট করে নেয়। ডাকাতদের হামলায় ৬ জন যাত্রী আহত হয়।ট্রেনটি যখন গৌরীপুর স্টেশনের আউটার সিগন্যালের কাছে (ভালুকা এলাকায়) এলে ট্রেনের গতি কমে যাওয়ায় ডাকাতদলের সদস্যরা নেমে যায়। গৌরীপুর স্টেশনে  এসে ক্ষতিগ্রস্ত যাত্রীরা ট্রেন আটকে রাখে এবং কর্তব্যরত পুলিশকে ধাওয়া করে। এসময় তারা ট্রেনের কর্মকর্তারা জড়িত থাকার অভিযোগ এনে বিক্ষোভ মিছিল করে। ডাকাতরা ভালুকা এলাকায় নেমে যাওয়ায় খবর শুনে এলাকাবাসী রাতভর ডাকাতদের ধাওয়া করে পুকুরের কচুরিপানার ভেতর থেকে ২ জনকে আটক করেছে। আটকরা হলেন, আ. সেলিম (৩০) ও কাউসার (২৪)। তাদের সোমবার সকালে পুলিশে সোর্পদ করা হয়েছে।
ফেসবুক থেকে মতামত দিন

নববার্তা.কম এর সংবাদ পড়তে লাইক দিন নববার্তা এর ফেসবুক ফান পেজে

আরও অন্যান্য সংবাদ


টুইটর




Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com