,

আগামী নভেম্বরের আগে কোন ওয়ানডে ম্যাচ নেই বাংলাদেশের !

আইসিসির সূচি অনুযায়ী আগামী নভেম্বরের আগে কোন ওয়ানডে ম্যাচ নেই বাংলাদেশের। অথ্যাৎ, টানা এক বছর ওয়ানডে থেকে বাইরে থাকতে হবে টাইগারদের। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে পথ চলার পর থেকে এত দীর্ঘ বিরতি আর কখনও পায়নি বাংলাদেশ। গত বছর বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনালে খেলা, ওয়ানডে সিরিজে পাকিস্তানকে হোয়াইটওয়াশ, ভারত এবং দক্ষিণ আফ্রিকার সাথে সিরিজ জয় চমক সৃষ্টি করলেও, আইসিসির ওয়ানডে সূচিতে কোন স্থান নেই বাংলাদেশের।

২০১৫,র ১১ নভেম্বর সর্বশেষ জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ওয়ানডে ম্যাচ খেলেছে বাংলাদেশ। আইসিসির ক্রীড়াসূচি অনুযায়ী, ২০১৬ সালের নভেম্বরের আগে কোন ওয়ানডে ম্যাচ বরাদ্দ নেই বাংলাদেশের। অথচ ২০০৬ সালের নভেম্বরে আর্ন্তজাতিক টি-টোয়েন্টিতে অভিষেকের পর থেকে এ পর্যন্ত মাত্র ৪৬টি আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলা বাংলাদেশের সামনে এ বছর ২০১৬ হাতছানি দিচ্ছে রেকর্ড সংখ্যক ১৭টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ।

এক বছরে এতগুলো টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলার সুযোগকে কাজে লাগাতে চাইছেন বাংলাদেশ দলের সিনিয়র ক্রিকেটার মাহমুদুল্লাহ। তিনি বলেন, এবছর অনেকগুলো টি-টোয়েন্টি ম্যাচ পাচ্ছি। প্রথমে টি-টোয়েন্টি সিরিজ, এরপর ওই ফরম্যাটে এশিয়া কাপ, তারপর টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। যেহেতু সামনে বেশির ভাগ টুর্নামেন্টই টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটের এবং আমরা এই ভার্সনের ক্রিকেটের সঙ্গে খুব একটা অভ্যস্ত নই, তাই এই ফরম্যাটের ক্রিকেট ম্যাচ যত বেশি খেলব, ততই আমাদের জন্য ভাল হবে।

২০১৯ সালে ইংল্যান্ডে বসবে ১০দেশকে নিয়ে বিশ্বকাপের আসর। আইসিসির এই মেগা আসরে সরাসরি খেলতে হলে ওয়ানডে র্যাংকিংয়ে থাকতে হবে সেরা আটের মধ্যে। ২০১৭ সালের ৩০ সেপ্টেম্বরের মধ্যে আইসিসির সেই ডেডলাইনও মাথায় রাখতে হচ্ছে বিসিবিকে। সে কারণে এফটিপি-র বাইরে ফাঁকা স্লট পেলেও র্যাংকিংয়ে নীচের সারির দলগুলোর বিপক্ষে ওয়ানডে খেলা থেকে বিরত থাকার কৌশলও নিয়েছে বিসিবি।

ফেসবুক থেকে মতামত দিন

নববার্তা.কম এর সংবাদ পড়তে লাইক দিন নববার্তা এর ফেসবুক ফান পেজে

আরও অন্যান্য সংবাদ


Udoy Samaj

টুইটর




Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com